দেখতে দেখতে দশ বছর বিএনপির অন্দোলন কোন বছর

0
260

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন দরজায় কড়া নাড়ছে। সব দলের অংশ গ্রহণের মাধ্যমে একটি অবাধ ও সুষ্ঠু নির্বাচন প্রতিটি নাগরিকের কাম্য। এই নির্বাচনকে ঘিরে রাজনৈতিক ক্ষেত্র ক্রমশ: উত্তপ্ত হয়ে উঠছে। জনমনে শংকা বিরাজ করছে দেশ আবার কোন সংঘাতের দিকে যাবে কি না। ইতোমধ্যে বিএনপি, গণফোরাম, জাসদ ও বিকল্পধারা মিলে বৃহত্তর ঐক্য গঠন করে। ঐক্যের দাবি একাদশ জাতীয় নির্বাচনের আগে সরকারকে পদত্যাগ করতে হবে, সংসদ ভেঙে দিতে হবে, সেনাবাহিনী নিয়োগ করতে হবে ও নির্বাচনের সময় সেনাবাহিনীকে মেজিস্ট্রেসি ক্ষমতা দিতে হবে। এই দাবি না মানলে কঠোর আন্দোলনের হুঁশিয়ারি দেয়া হয়।

বলা হয় বৃহত্তর ঐক্যের দাবি না মানলে চলতি মাসের ১ তারিখ থেকে সভা সমাবেশ ও তীব্র আন্দোলন করে সরকারকে এসব দাবি মেনে নিতে বাধ্য করা হবে। এদিকে বিএনপি তাদের বিভিন্ন সময়ে বিভিন্ন দাবি আদায়ে বহুবার আন্দোলনের হুমকি দেয়। কিন্তু আজ পর্যন্ত তারা আন্দোলনের কিনারে পর্যন্ত পৌছতে পারেনি। খালেদা জিয়ার মুক্তি ও তারেক রহমানের নামে মিথ্যা মামলা প্রত্যাহারের দাবিতে বিএনপি অনেকবার অন্দোলনের হুমকি দিলেও আজ পর্যন্ত কোন অন্দোলনই দলটি করতে পারে নি। এর প্রেক্ষিতে সরকারের পক্ষ থেকে বলা হচ্ছে দেখতে দেখতে দশ বছর, বিএনপির আন্দোলন কোন বছর? আসলে বিএনপির আন্দোলন করার ক্ষমতা নেই তা বিএনপি নিজেই জানে। এদিকে বৃহত্তর ঐক্যর মধ্যে ফাঁটল দেখা দিয়েছে। গণফোরামের সভাপতি ডা: কামাল হোসেন একবার বলছেন সংসদ ভেঙে দিতে হবে ও নিরপেক্ষ সরকারের অধীনে অবাধ ও সুষ্ঠু নির্বাচন করতে হবে যাতে সব দলেরই অংশ গ্রহণ নিশ্চিত হয়। তিনি আবার বলছেন শেখ হাসিনার অধীনে নির্বাচনে যেতে তার কোন আপত্তি নেই। সম্প্রতি পত্রিকাগুলোতে প্রকাশিত সংবাদ ও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম থেকে ডা: কামাল হোসেনের এধরনের দুরকমের বক্তব্য পওয়া যায়। সংশ্লিষ্ট মহল বলছেন বিএনপির বড় মাপের নেতাকর্মীরা এক সময়ে অবৈধ পথে প্রচুর আয় করেছেন। আজ তারা আয়কৃত সম্পদ ভোগে ও আরাম আয়েশের দিকে ঝুঁকে রয়েছেন। মাঠে নেমে আন্দোলন করার মত মনের দিক দিয়ে প্রস্তুতি ও শক্তি কোনটিই তাদের নেই। জাতীয় নির্বাচনের আর মাত্র বাকি আছে অল্প কয়েক দিন। বিএনপি কবে রাজপথে নামবে, তাদের নেত্রী খালেদা জিয়াকে কবে মুক্ত করবে ও নির্বাচনের পূর্ব শর্ত মানতে সরকারকে কবে বাধ্য করবে তা নিয়ে অনিশ্চয়তা ও হতাশা উভয়ই বিরাজ করছে দলটির মধ্যে।

Print Friendly, PDF & Email

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here

three × four =