প্রেমে প্রতারিত হয়ে জীবন দিলেন ইডেন ছাত্রী

0
121

একই এলাকায় বাড়ি হওয়ার সুবাদে তাদের মাঝে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে। আড়ালে আবডালে তাদের মাঝে একাধিকবার ডেটিংও হয়েছে। স্বপ্ন ছিল তাদের একটি সুখের সংসার হবে।

 

সেভাবেই কথা চলছিল। তবে শেষ পর্যন্ত বেঁকে বসেন বয়ফ্রেন্ড। বিয়ে তো দূরের কথা সম্পর্ক টিকে থাকবে কিনা এনিয়ে শুরু হয় বিতণ্ডা। বয়ফ্রেন্ডের সঙ্গে ভিডিও কল শেষে ইডেন মহিলা কলেজের এক ছাত্রী আত্মহত্যা করেছেন। মঙ্গলবার তার দাফন সম্পন্ন হয়েছে। ওই ছাত্রীর পুরো নাম সায়মা কালাম মেঘা। তিনি ইডেন মহিলা কলেজের সমাজকর্ম বিভাগের অনার্স দ্বিতীয়বর্ষের শিক্ষার্থী ছিলেন। মেঘার বাড়ি ঝালকাঠি জেলা সদরে। তার বাবার নাম আবুল কালাম আজাদ ও মা রুবিনা আজাদ। জানা গেছে, মেঘার সাথে বরিশাল সরকারি সৈয়দ হাতেম আলী কলেজের অনার্স চতুর্থ বর্ষের শিক্ষার্থী মাহীবি হাসান নামে এক যুবকের প্রেমের সম্পর্ক ছিল। দীর্ঘদিন যাবত তাদের পরিচয়। মাহীবি হাসান মেঘাকে বিয়ের কথা বলে তার সাথে ঘনিষ্ঠ সম্পর্ক গড়ে তুলে। স্বপ্ন দেখিয়েছেন সুখের সংসারের। তবে শেষ পর্যন্ত প্রতারণার আশ্রয় নেন তিনি। মেঘাকে জানিয়ে দিলেন তার সঙ্গে আর সম্পর্ক রাখা সম্ভব নয়। এদিকে মেঘা তার প্রেমের সম্পর্কের কথা তার পরিবারের সদস্যদের আগেই জনিয়েছিলেন। এর জন্য মাহীবি হাসানকে বিয়ের বিষয়টি অবহিত করতে বলা হয় মেঘাকে। মেঘাও বিষয়টি তার বয়ফ্রেন্ড মাহীবিকে জানান। তবে এবার বেঁকে বসেন তিনি। মেঘাকে জানিয়ে দিলেন বিয়ে করা সম্ভব নয়। এনিয়ে বাকবিতণ্ডা চলছিল ভিডিও কলেই। এক পর্যায়ে রবিবার ভিডিও কল রেখেই ফ্যানের সঙ্গে আত্মহত্যা করেন মেঘা। ইডেন কলেজের মেধাবী ছাত্রী মেঘার জীবনের গল্পটা এখানেই শেষ। তবে তার জীবনের গল্পটা অন্যরকম হতে পারতো। বয়ফ্রেন্ডের প্রতারণার শিকার না হলে তাদের একটি সুখের সংসার হতে পারতো। মেয়েকে হারিয়ে পরিবারের সদস্যদের মাঝে শোক বিরাজ করছে। এদিকে পরিবারের সদস্যরা জানিয়েছেন, এ ঘটনায় তারা মামলার প্রস্তুতি নিচ্ছেন। মেঘার চাচা আবুল কাশেম সাংবাদিকদের বলেন, ময়না তদন্তের রিপোর্টের অপেক্ষায় আছি আমরা। রিপোর্ট পেলে এঘটনায় মামলা করা হবে বলে উল্লেখ করেছেন তিনি। মেঘার বড় ভাই সম্রাট জানিয়েছেন, মঙ্গলবার সকাল সাড়ে আটটার দিকে মেঘার নিজ জেলা ঝালকাঠিতে তার দাফন সম্পন্ন করা হয়েছে। এর আগে রবিবার মেঘার সঙ্গে ওই যুবকের ভিডিও কলে বিয়ে নিয়ে কথা হয়। কিন্তু এতে রাজি না হওয়ায় মেঘা ভিডিও কল রেখেই আত্মহত্যা করেন। তার বোনের সঙ্গে প্রতারণার বিষয়টি মেনে নিতে পারছেন না তিনি।

Print Friendly, PDF & Email

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here

four × three =