ট্রাকের নিচে চাপা পড়ে মারা গেলেন মুরগী ব্যবসায়ী

0
90

সন্তানকে বাঁচাতে রিক্সা থেকে ধাক্কা দিয়ে রাস্তার পাশে ফেলে ট্রাকের নিচে চাপা পড়ে মারা গেছেন এক বাবা। এতে সামান্য আহত হয়েছেন ছেলে। একই ঘটনায় মারা গেছেন রিক্সা চালকও।

 

বৃহস্পতিবার দিবাগত মধ্য রাতে সিদ্ধিরগঞ্জের চিটাগাংরোড বিদ্যুৎ অফিসের সামনে মর্মান্তিক এ দুর্ঘটনা ঘটে। সিদ্ধিরগঞ্জ থানার এস আই বাদশা আলম প্রত্যক্ষদর্শীদের বরাত দিয়ে জানান, আদমজী থেকে ঢাকাগামী একটি ট্রাক (চট্টমোট্টো-শ-১১-১৮৫৬) দ্রুত গতিতে এসে রিক্সাটিকে চাপা দিলে ঘটনাস্থলেই চালক মারা যায়। অপরদিকে রিক্সারোহীকে গুরুতর আহতাবস্থায় হাসপাতালে নেওয়া হলে সেখানে তার মৃত্যু হয়। এ ঘটনায় ঘাতক ট্রাকটিকে আটক করা হয়েছে। দুর্ঘটনায় নিহতরা হলেন- রিক্সার যাত্রী নূর হোসেন (৫০) ও চালক আকাশ (১৭)। নিহত নূর হোসেন ঢাকার গুলিস্তানের কাপ্তান বাজারের মুরগী ব্যবসায়ী। তিনি নারায়ণগঞ্জের জেলার সোনারগাঁ থানাধীন মঞ্জুরখোলা গ্রামের মোহাম্মদ আলী মিয়ার ছেলে। রিক্সা চালক আকাশ নেত্রকোণার মোহনগঞ্জের সাতু গ্রামের মাজাহারুলের ছেলে। তিনি পরিবার নিয়ে সিদ্ধিরগঞ্জে আটি ওয়াপদা এলাকায় ফজলুল হকের বাড়িতে ভাড়া থাকতো। নিহত নূর হোসেনের ছোট ভাই মুঠোফোনে বলেন, আমার বড় ভাই ঢাকায় কাপ্তান বাজারে মুরগীর ব্যবসা শেষে বাসায় ফেরার পথে সন্তানসহ দুর্ঘটনার কবলে পড়েন। সন্তানকে বাঁচাতে ধাক্কা দিয়ে রিক্সা থেকে ফেলে দিলে আমার ভাতিজা রাস্তার এক পাশে ছিঁটকে পড়ে। এতে ভাতিজা বেঁচে গেলেও আমার ভাই ট্রাকের নিচে চাপা পড়ে মারা যায়। রিক্সা চালকের বড় বোন বলেন, কোন কাজ কর্ম না থাকায় মায়ের কাছে দোয়া চেয়ে আমার ভাই রিক্সা নিয়ে বের হয়েছিল। আয়-রোজগার করতে গিয়ে প্রথম দিনেই সে মারা যায়।

Print Friendly, PDF & Email

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here

17 − five =