গলায় দড়ি দিয়ে আত্মহত্যা করলেন স্বামী

1
179

স্ত্রীর মানসিক নির্যাতন সইতে না পেরে বান্দরবানে সাইফুল ইসলাম (২০) নামে এক স্বামী গলায় দড়ি দিয়ে আত্মহত্যা করেছেন। শনিবার সকালে বান্দরবানের নাইক্ষ্যংছড়ি উপজেলা সদরের মাদরাসা ঘোনা এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

 

তার মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। স্থানীয়রা জানান, সাইফুল দিনমজুর ছিলেন। দেড়-দুই বছর আগে প্রেম নিবেদনের মাধ্যমে ওই ইউনিয়নের রসুলপুর গ্রামের আব্দুস সাত্তারের মেয়ে হামিদা বেগমের সঙ্গে সোহেলের বিয়ে হয়। দীর্ঘদিন ধরে সাংসারিক কলহ চলে আসছিল তাদের মধ্যে। স্ত্রী হামিদা বেগম প্রতিনিয়ত স্বামীকে মানসিক নির্যাতন করে আসছিল। স্ত্রীর মানসিক নির্যাতন সহ্য করতে না পেরে আত্মহত্যার পথ বেছে নিয়েছেন সাইফুল। তবে ভাড়া বাসায় আত্মহত্যার পর বাসার পাশের রাস্তা থেকে তার মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ। নাইক্ষ্যংছড়ি সদর ইউপির সদস্য আরেফ উল্লাহ ছুট্ট বলেন, দীর্ঘদিন ধরে স্বামী-স্ত্রী মধ্যে সাংসারিক কলহ চলছিল। স্ত্রী হামিদা বেগম প্রায়ই সাইফুলকে গালমন্দ করে মানসিক নির্যাতন করত। এতে বিপর্যস্ত হয়ে আত্মহত্যা করেছে সাইফুল। নাইক্ষ্যংছড়ি থানা পুলিশের পরিদর্শক (তদন্ত) জায়েদ নুর বলেন, সাইফুলের মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য বান্দরবান জেলা সদর হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে। ময়নাতদন্তের রিপোর্টের পর জানা যাবে আত্মহত্যা নাকি হত্যা।

Print Friendly, PDF & Email

1 মন্তব্য

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here

one × 2 =