৬ টন খেজুরই মেয়াদোত্তীর্ণ ও পঁচা

4
1317

রোজায় ইফতারের অন্যতম আইটেম খেজুর। সারাদিন রোজা রাখার পর যদি মেয়াদহীন, পঁচা খেজুর দিয়ে ইফতার করতে হয়, তাহলে একবার ভাবুন তো ! পুরান ঢাকার বাদমতলী ফলের আড়তে এমন মেয়াদোত্তীর্ণ, পঁচা খেজুর ধরা পড়ে Rab-র ভ্রাম্যমান আদালতের অভিযানে।

 

চারটি প্রতিষ্ঠানকে ৬৯ লাখ টাকা জরিমানা করা হয়। সেখান থেকে জব্দ করা হয় ২২ টন পঁচা খেজুর। ক্রেতার কাছে ব্রিক্রির জন্য প্যাকেটজাত খেজুর সাজিয়ে রেখেছেন দোকানী। কিন্তু প্যাকেটের গায়ে উৎপাদনেরর তারিখ দেখে চোখ আটকে গেলো। উৎপাদনের তারিখ ১০ মে অথচ ৭মে বুধবার পার হয়নি তখনো। অনেক প্যাকেটে মেয়াদ আছে কিন্তু ভিতরে খেজুর পঁচে গেছে। আবার কিছু খেজুরকে চকচকে করতে ব্যবহার করা হয়েছে ডেট সিরাপ ও পাম অয়েল। অথচ খেজুরগুলো খাবার উপযোগী নয়। এবার এসব শোরুমের গোডাউনে অনুসন্ধান চালায় Rab এর ভ্রাম্যমান আদালত। যদিও সেসব গোডাউনের মালিককে না পেয়ে তালা ভাঙ্গতে হয়। ভিতরে মজুদ প্রায় ৬ টন খেজুরই মেয়াদোত্তীর্ণ ও পঁচা। এসব নিম্ন মানের খেজুর ক্রেতাদেরকে খাওয়াতে নতুন মোড়ক ছাঁপিয়ে পুরোনো পঁচা খেজুর প্রক্রিয়া হয় এসব গোডাউনে, তাও আবার ভ্যাপসা গরমে। অথচ এসব পণ্য কোল্ডস্টোরেজে রাখার কথা। বাদামতলীর খেজুরগলির এসব নিম্নমানের খেজুরই খাওয়ার জন্য দেশের বিভিন্ন জায়গায় বিক্রি করা হয়।

Print Friendly, PDF & Email

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here

4 × three =