অভিযোগপত্র গৃহীত হলে আর অনুমোদন নেওয়া লাগবে না

3
111

ফৌজদারি মামলায় কোনো সরকারি কর্মচারীর বিরুদ্ধে অভিযোগপত্রের আগে গ্রেফতার করতে সরকারের অনুমতি নেওয়ার বিধান রেখে ‘সরকারি চাকরি আইন-২০১৮’ খসড়া নীতিগত অনুমোদন দিয়েছে মন্ত্রিসভা।

 

সোমবার প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে তার কার্যালয়ে মন্ত্রিসভার বৈঠকে এই খসড়ার চূড়ান্ত অনুমোদন দেওয়া হয়। মন্ত্রিসভার বৈঠকের পর সচিবালয়ে এক ব্রিফিংয়ে মন্ত্রিপরিষদ সচিব মোহাম্মদ শফিউল আলম সাংবাদিকদের একথা জানান। তিনি বলেন, সরকারি কর্মচারীদের ফৌজদারি অপরাধে অভিযোগপত্র গৃহীত হওয়ার আগে গ্রেফতার করতে হলে সরকার বা নিয়োগকারী কর্তৃপক্ষের অনুমতি লাগবে। অভিযোগপত্র গৃহীত হলে আর অনুমোদন নেওয়া লাগবে না। তিনি জানান, সরকারি চাকরি আইন-২০১৮ খসড়া অনুযায়ী, ফৌজদারি মামলায় কোনো সরকারি কর্মকর্তা এক বছরের সাজা পেলে বা মৃত্যুদণ্ড হলে তাকে চাকরি থেকে বরখাস্ত করা হবে। বাংলাদেশের কোনো সরকারি চাকরিজীবী যদি বিদেশি নাগরিকত্ব গ্রহণ করেন, তাকে চাকরি থেকে বরখাস্ত করা হবে। এই আইন পাস হলে দুদক ফাঁদ পেতে কোনো সরকারি কর্মচারীকে গ্রেফতার করতে পারবে কি না- সাংবাদিকদের এই প্রশ্নে সচিব বলেন, অভিযোগপত্র পর্যন্ত অপেক্ষা করতে হবে। তার আগে গ্রেফতার করতে হলে অনুমতি নিতে হবে।

Print Friendly, PDF & Email

3 মন্তব্য

  1. অভিযোগপত্র গৃহীত হলে আর অনুমোদন নেওয়া লাগবে না.
    তার আগে গ্রেফতার করতে হলে অনুমতি নিতে হবে।

  2. সোমবার প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে তার কার্যালয়ে মন্ত্রিসভার বৈঠকে এই খসড়ার চূড়ান্ত অনুমোদন দেওয়া হয়

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here

16 − 5 =