কিশোরগঞ্জের আবুল, মোজাম্মেল গং এর ভূমিদস্যুদের কবলে আকবর আলী গং পরিবার নিঃস্ব

0
153

অপরাধ বিচিত্রাঃ নীলফামারী জেলা কিশোরগঞ্জ উপজেলার চাঁদখানা ইউনিয়ন ৮ নং ওয়ার্ডের কেল্লাবাড়ি বগুলাগাড়ী  মুন্সিপাড়া গ্রামের আকবর আলী গং এর পরিবারের সদস্যরা অতি অসহায় হয়ে পড়ছে। একই গ্রামের আবুল ও মোজাম্মেল গং এরা প্রকৃতপক্ষে দুর্ধর্ষ প্রতারক ভূমিদস্যুর দীর্ঘদিন ধরে ভূমি জবর-দখল করে আসছে দিনের পর দিন বছরের পর বছর। এই ভূমিদস্যুদের কারণে আকবর আলী গং এর পরিবারের সদস্যরা আজকে নিঃস্ব হয়ে পড়ছে এই ষড়যন্ত্রের শিকারে।

আবুল ও মোজাম্মেল গং ভূমিদস্যুরা স্বার্থনীসি হীনস্বার্থ হাসিলের উদ্দেশ্যে আকবর আলী গং এর পরিবারকে প্রতিনিয়ত হুমকি দেয়, বলে তোমাদেরকে আমরা দেখে নিব আর বেশি বাড়াবাড়ি করলে জানে মারিয়া ফেলব। তোমাদের ভূমি জমিতে আবাদ-সুবাদের বিভিন্ন প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টি করবে, খেত-খেলায় গরু-ছাগল লেলিয়ে দিয়ে ফসলের বিনষ্ট করিবে। এমতাবস্থায় ভূমিদস্যুরা বাড়িতে রাতের অন্ধকারে বেআইনিভাবে অস্ত্রশস্ত্র এমনকি মাদকদ্রব্য ঢুকাইয়া দিয়ে বলে বিভিন্ন সময় হয়রানি করার হুমকিও দেয়। আকবর আলী অপরাধ বিচিত্রা কে অভিযোগ করে বলেন আমার পরিবারের সদস্যরা যখন বাড়ির পাশে রাস্তা দিয়ে চলাচল করে তখন ভূমিদস্যু গং এর আব্দুল আলিম ও শাহাজাহান তাদের স্ত্রীকে দিয়ে বিভিন্ন সময় গালিগালাজ করায় এবং তাদের স্ত্রীকে দিয়ে মিথ্যা মামলা করা প্রতিনিয়ত হুমকি দেয়। আকবর আলী গং এর অসাবধানতার কারণে বিগত মাঠ জরিপ আমলে রেকর্ড কর্মচারীগণের যোগসাজশে আকবর আলী গং এর নামে ডিপি খতিয়ানে কম বিত্ন রেকর্ড করিয়ে দেন। এলাকায় এখনো চূড়ান্ত বি, এস রেকর্ড প্রচারিত হয় নাই এজন্য আকবর আলী গং বি, এস রেকর্ড বিষয়ে কোন পদক্ষেপ গ্রহণ করতে পারতেছেন না। কিন্তু মাঠ জরিপ কালীন সময়ে আকবর আলী গং তাদের কাগজপত্র রেকর্ড কর্মচারীগণকে প্রদান করিয়া তাহাদের অংশের বিত্ন সঠিকভাবে আকবর আলী গং এর নামে রেকর্ড করিয়ে দিতে অনুরোধ করেন কিন্তু রেকর্ড কর্মচারীগণ আকবর আলী গং এর অনুরূপ থাকার করতঃ মোজাম্মেল ও আবুল গং এর শহীদ যোগসাজশে ডি, পি খতিয়ান প্রস্তুতকালে রেকর্ড কম বেশি করিয়া ফেলেন কিন্তু আকবর আলী গং এর নিকট সঠিক ভাবে বি, এস রেকর্ড করিয়া দিয়েছেন মর্মে ব্যক্ত করেন। পরবর্তীকালে আকবর আলী গং ডি, পি খতিয়ান উত্তোলন করিয়া উক্ত কমবেশি তথা ভুলের বিষয় অবগত হন। ১ নং লটঃ জেলা নীলফামারী, উপজেলা কিশোরগঞ্জ মৌজা বগুলাগাড়ী, জে এল নং-২৩ এর মধ্যে খতিয়ান  বি, এস- ৯৩৫, এস, এ- ৯১৭, দাগ নং-৫৯৮ এর মোট জমির পরিমাণ ৩৪ শতক। ২ নং লটেঃ জেলা নীলফামারী, উপজেলা কিশোরগঞ্জ মৌজা বগুলাগাড়ী জে, এল নং-২৩ এর মধ্যে খতিয়ান বি, এস-২৬৬, এস, এ-২৪২, দাগ নং-৬৭৪ এর মোট জমি ৩৫ শতক। সি, এস-৪৮৯, এস এ-৪৮১ দাগ নং-৬৬৫, মোট জমি ৩ শতক। এস, এ- ৪৮১ দাগ নং-৬৬৬ মোট জমি ২৩ শতক। সি, এস ৪৯০, দগ নং-৬৬৭, মোট জমি ৬০ শতক। এস, এ-৪৮২, দাগ নং-৬৬৮, মোট জমি ৬ শতক। এস, এ-৪৮২ দাগ নং-৬৭৫, মোট জমি ১.০৮ শতক। এস, এ-৪৮২, দাগ নং-৬৭৬, মোট জমি ৭ শতক। এস, এ-৪৮২, দাগ নং-৬৯৫, মোট জমি ২৯ শতক। এস, এ-৪৮২, দাগ নং-৬৯৬, মোট জমি ৩৫ শতক। এস, এ-৪৮২, দাগ নং-৬৯৭, মোট জমি ২৫ শতক। এস, এ-৪৮২, দাগ নং- ৬৯৮, মোট জমি ৩৮ শতক। এস, এ-৪৮২, দাগ নং- ৬৯৯, মোট জমি ১৬ শতক। এস, এ-৪৮২, দাগ নং-৭০২, মোট জমি ২৩ শতক। এস, এ-৪৮২, দাগ নং-৭০৪, মোট জমি ৪১ শতক। এস, এ-৪৮২, দাগ নং- ৭০৯, মোট জমি ২২ শতক। এস, এ-৪৮২, দাগ নং- ৭২০, মোট জমি ২ শতক। এস, এ-৪৮২, দাগ নং- ৭২১, মোট জমি ৭ শতক। এস, এ-৪৮২, দাগ নং-১৬৭৯, মোট জমি ১৭ শতক। এস, এ-৪৮২, দাগ নং-১৬৮০, মোট জমি ১৮ শতক। এস, এ-৪৮২, দাগ নং- ১৬৮৪, মোট জমি ১৬ শতক। এস, এ-৪৮২, দাগ নং-১৭২৪, মোট জমি ৪২ শতক। এস, এ-৪৮২, দাগ নং- ১৭২৫, মোট জমি ২০ শতক। এস এ-৪৮২ দাগ নং- ১৭৪০, মোট জমি ৪ শতক। এস, এ-৪৮২, দাগ নং- ১৭৪১, মোট জমি ৯ শতক। এস, এ-৪৮২, দাগ নং- ১৭৫৪, মোট জমি ৭ শতক। এস, এ-৪৮২, দাগ নং- ১৭৫৬, মোট জমি ১৪ শতক। এস, এ-৪৮২, দাগ নং-১৭৬০, মোট জমি ২৪ শতক। এস, এ-৪৮২, দাগ নং-১৭৬১, মোট জমি ৬ শতক। এস, এ-৪৮২, দাগ নং- ১৭৮০, মোট জমি ২২ শতক। এস, এ-৪৮২, দাগ নং- ১৭৮১, মোট জমি ১২ শতক। এস, এ-৪৮২, দাগ নং- ১৭৮৪, মোট জমি ৬ শতক। এস, এ-৪৮২, দাগ নং- ১৭৮৭, মোট জমি ৭ শতক। এস, এ-৪৮২, দাগ নং- ১৭৮৮, মোট জমি ৭ শতক। এস, এ-৪৮২, দাগ নং- ১৭৮৯, মোট জমি ২৪ শতক। এস, এ-৪৮২, দাগ নং-১৭৯২, মোট জমি ২৬ শতক। এস, এ-৪৮২, দাগ নং- ১৭৯৯, মোট জমি ২০ শতক। এস, এ-৪৮২, দাগ নং- ৩১৭৬, মোট জমি ১০ শতক। এস, এ-৪৮২, দাগ নং- ৩১৮২, মোট জমি ৩ শতক। সি, এস-৭৩৮, দাগ নং-৬৬৯, মোট জমি ১৬ শতক।এস, এ-৭৩৩, দাগ নং-৬৮০, মোট জমি ৯ শতক। এস, এ-৭৩৩, দাগ নং- ৬৮১, মোট জমি ৯ শতক। এস, এ-৭৩৩, দাগ নং-৬৮২, মোট জমি ১১ শতক। এস, এ-৭৩৩, দাগ নং-৬৭৫/১৮৪৪, মোট জমি ২৩ শতক। সি, এস,-৭৬২, দাগ নং-৬৮৮, মোট জমি ২৬ শতক। এস, এ-৭৫৯, দাগ নং-৬৮৯, মোট জমি ৬৬ শতক। এস, এ-৭৫৯, দাগ নং-৬৯০, মোট জমি ১.০৬ শতক। ১/২ নম্বর লটে মোট জমির পরিমাণ = ১১.৬ একর/শতক। উপায়ন্তর না পেয়ে আকবর আলী গং গত ২৪/০৬/২০১৮ ইং তারিখে সহকারী জজ আদালত কিশোরগঞ্জ নীলফামারী কোর্টে মামলা দায়ের করে। যাহর মামলা নং-৩৭/২০১৮ মামলাটি বিচারাধীন। (চোখ রাখুন পরবর্তি সংখ্যায়)……

 

Print Friendly, PDF & Email

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here

fourteen − six =