এক নারীর স্তন কেটে ফেলার অভিযোগ

0
77

নেত্রকোণার খালিয়াজুরী উপজেলায় এক নারীর স্তন কেটে ফেলার অভিযোগে মানিক তালুকদার নামের এক ভুয়া চিকিৎসককে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। গতকাল সোমবার দিবাগত রাতে উপজেলার পাঁচহাট বাজারের ইকবাল হোমিও হল থেকে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়।

গ্রেপ্তার মানিক তালুকদার মদন উপজেলার কাতলা গ্রামের আমির উদ্দিন তালুকদারের ছেলে। পাঁচহাট গ্রামের ভুক্তভোগী এক নারী তার বিরুদ্ধে খালিয়াজুরী থানায় লিখিত অভিযোগ করেন। আজ মঙ্গলবার তাকে নেত্রকোণা আদালতে পাঠিয়েছে পুলিশ।

অভিযোগে বলা হয়, গত ৭ এপ্রিল পাঁচহাট বাজারের ইকবাল হোমিওতে চিকিৎসকের পরামর্শ নিতে যান ওই নারী। এ সময় তিনি স্তন ক্যান্সারে আক্রান্ত হয়েছেন বলে জানান। সেই রোগ সারানোর জন্য ওই নারীকে অজ্ঞান করেন মানিক। পরে সার্জিকাল ব্লেড দিয়ে তার বাম স্তন কেটে ফেলেন।

এ বিষয়ে খালিয়াজুরী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) এটিএম মাহমুদুল হক বলেন, ‘মানিক একজন ভুয়া চিকিৎসক। তাকে গ্রেপ্তারের পরও নিজেকে একজন হোমিও চিকিৎসক হিসেবে পরিচয় দেন। তার শিক্ষাগত যোগ্যতার সনদপত্র দেখতে চাইলে তিনি সেগুলো দিতে পারেননি। এতদিন তিনি মা ও শিশু, চর্ম, যৌন সার্জারি বিশেষজ্ঞ পরিচয় দিয়ে সাধারণ মানুষের সাথে প্রতারণা করে আসছিলেন।’

ওসি আরও জানান, মানিকের বিরুদ্ধে খালিয়াজুরী থানায় মামলা হয়েছে। আজ মঙ্গলবার দুপুরে তাকে নেত্রকোনা কোর্টে পাঠানো হয়েছে।

Print Friendly, PDF & Email

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here

3 × four =