সব সময়ই ইচ্ছা পাকিস্তানের মানুষের জন্য কাজ করা

0
61

পাকিস্তানের সাহসী কন্যা। প্রকাশ্য দিবালোকে লাহোরের রাস্তায় ২৩ বার ধারালো অ’স্ত্রের কোপ পড়েছিল তার শরীরে। কুপ্রস্তাবে না বলেছিলেন বলে এমন আক্রমণ হয়েছিল সেদিন। সেই সাহসিনী সম্প্রতি আইনের পড়াশোনা শেষ করে ডিগ্রি লাভ করলেন।

প্রায় ১২টি পরীক্ষা দেওয়ার পর বর্তমানে খাজিদা সিদ্দিকি একজন ব্যারিস্টার। বিশ্ববিদ্যালয় থেকেও তার বেশ ভালো রেজাল্টের কথা জানানো হয়েছে। ব্ল্যাকস্টোন স্কুল অফ ল (ইউনিভার্সিটি অফ লন্ডন) থেকে নিজের পড়াশোনা শেষ করলেন খাজিদা। ২০১৮ সালের সেপ্টেম্বরে এখানে ভর্তি হয়েছিলেন তিনি।

আপাতত সেখানে থেকেই কিছুদিন প্র্যাকটিস করতে চান তিনি। তবে অবশ্যই পাকিস্তানে ফিরে আসতে চান। তিনি বলেন, ‘সব সময়ই ইচ্ছা পাকিস্তানের মানুষের জন্য কাজ করা। আমি ঈশ্বরের কাছে প্রার্থনা করি আমাকে তিনি সেই শক্তি দিন যাতে যার মুখের শব্দ হারিয়েছে তাকে শব্দ দিতে পারি।’

২১ বছরের খাজিদা সিদ্দিকিকে ভয়াবহ আক্রমণের মুখে পড়তে হয়েছিল। লাহোরের শাহ হুসেইন নামে এক ব্যক্তির কুপ্রস্তাবে সাড়া দিতে চাননি তিনি, সে কারণেই তার উপর হা’মলা

Print Friendly, PDF & Email

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here

fifteen + sixteen =