উজিরপুরে করোনা যোদ্ধার আরেক নাম উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা প্রণতি বিশ্বাস

0
34

উজিরপুর প্রতিনিধি ঃ বরিশালের উজিরপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা প্রণতি বিশ্বাস দেশ ব্যাপি মহামারী করোনা ভাইরাস কোভিট-১৯ দেখা দিলে তখন থেকেই জীবনের মায়া ত্যাগ করে মাত্র ৫ বছরের শিশু পুত্র ও পরিবারের সান্নিধ্যকে দূরে রেখে প্রাণঘাতী করোনার বিরুদ্ধে যুদ্ধে নেমেছেন। লকডাউনের কারণে কর্মহীন হয়ে পড়া অসহায় দরিদ্র মানুষের মাঝে দুর্নীতি অনিয়মের অভিযোগ ছাড়াই প্রধানমন্ত্রীর ত্রাণ পৌছে দিয়ে ভূয়সী প্রসংশিত হয়েছেন। যেখানেই করোনা রোগীর সংবাদ পেতেন সেখানেই ছুটে গিয়ে লকডাউন সহ সচেতন করতে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করতেন। করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত মৃত ব্যক্তিদের দাফন ও সৎকারের জন্য তৈরী করেছে একটি স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন। ঐ সংগঠনের মাধ্যমে ইতিমধ্যে ৩ জন আক্রান্ত ও সন্দেহজনক ব্যক্তিদের দাফন কার্য সম্পাদন করেন। ইতিমধ্যে এই উপজেলায় প্রধানমন্ত্রীর মাধ্যমে ১৮ হাজার পরিবারের মাঝে ত্রাণ পৌছে দিয়েছেন। বর্তমানে পবিত্র ঈদুল ফিতর উপলক্ষে উপজেলায় আরো ১০ হাজার পরিবারকে ত্রাণ দেওয়ার কার্যক্রম শুরু করেছেন। এছাড়া উপজেলায় আশা এনজিও ২শত পরিবারকে, পদক্ষেপ এনজিও ১ শত পরিবারকে ত্রাণ এবং ওয়াল্ড ভিশন এনজিও ৩৭৯টি পরিবারকে ৩ হাজার টাকা প্রদান করেন। এছাড়া ব্র্যাক ১৫ শত টাকা করে ত্রাণ ও জাগরনী ফাউন্ডেশন ৫ শত টাকা করে ১ শত পরিবারের মাঝে বিতরণ করেন। এ ব্যাপারে নির্বাহী অফিসার প্রণতি বিশ্বাস বলেন মানুষের কল্যানে কাজ করাটা আনন্দের। তবে জীবনের ঝুকি তো আছেই এই সময় ইচ্ছা করলেই সন্তান ও পরিবারের সান্নিধ্যে আশা যায়না।

এছাড়া ব্র্যাক ১৫ শত টাকা করে ত্রাণ ও জাগরনী ফাউন্ডেশন ৫ শত টাকা করে ১ শত পরিবারের মাঝে বিতরণ করেন। এ ব্যাপারে নির্বাহী অফিসার প্রণতি বিশ্বাস বলেন মানুষের কল্যানে কাজ করাটা আনন্দের। তবে জীবনের ঝুকি তো আছেই এই সময় ইচ্ছা করলেই সন্তান ও পরিবারের সান্নিধ্যে আশা যায়না।

তিনি আরো বলেন মাননীয় সংসদ সদস্য, উপজেলা চেয়ারম্যান, পৌর মেয়র, রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দ, ইউপি চেয়ারম্যান, মেম্বর, চৌকিদার, দফাদার, আনসার ভিডিপি সদস্য সহ সকলের সহযোগীতা এই যুদ্ধে এগিয়ে যাচ্ছি। পবিত্র ঈদুল ফিতর উপলক্ষে পৌরসভা সহ প্রতিটি ইউনিয়নে ১০ টন চাল ও ৩১ হাজার টাকা বরাদ্দ দেওয়া হয়েছে। প্রতিটি ইউনিয়নে ১ হাজার পরিবারকে এ চাল বিতরণ করা হয়েছে।

এ যাবৎ প্রধানমন্ত্রীর ত্রাণ তহবিল, বিভিন্ন এনজিও সহ প্রায় ৩০ হাজার পরিবার এ খাদ্য সহায়তা প্রদান করা হয়েছে। এছাড়া বিভিন্ন ব্যক্তি ও স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন পৃথক পৃথক সহযোগীতা প্রদান করেছেন। তিনি আরো বলেন সুপার সাইক্লোন আম্ফানে ক্ষতিগ্রস্থদের তালিকা তৈরী করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে। 

Print Friendly, PDF & Email

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here

three − two =