অ্যাম্বুলেন্সে ছটফট করতে করতেই মারা গেলেন ৪ সন্তানের মা

0
151

করোনার উপসর্গ (তীব্র শ্বাসকষ্ট) নিয়ে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের সামনে সারা রাত অপেক্ষার পর অ্যাম্বুলেন্সেই মারা গেলেন কক্সবাজারের সাংবাদিক জিয়াউল করিমের স্ত্রী জেবুন্নেছা (৪৮)। সোমবার (১৫ জুন) সকাল সাড়ে ৯টার দিকে মারা যান তিনি। করোনাভাইরাস (কোভিড-১৯) টেস্টের রিপোর্ট না থাকায় রোববার (১৪ জুন) সারারাতের চেষ্টায়ও চট্টগ্রামের কোন হাসপাতাল তাকে ভর্তি করেনি। বিনা চিকিৎসাতেই অ্যাম্বুলেন্সে ছটফট করে মারা যান জেবুন্নেছা। সাংবাদিক জিয়াউল করিম জানান, পেকুয়ার স্থায়ী বাসিন্দা হলেও কক্সবাজার শহরের বাহারছড়া এলাকায় পরিবার নিয়ে বসবাস করতেন তিনি। তার পরিবারের সবারই গত ১ জুন থেকে করোনাভাইরাসের উপসর্গ ছিল। টেস্ট না করে বাড়িতে থেকেই তারা চিকিৎসা চালিয়ে যাচ্ছিলেন। জিয়াউল করিম নিজেও ‍উপসর্গে ভুগছিলেন। কিন্তু অন্য সবাই সুস্থ হওয়ার পথে থাকলেও স্ত্রী জেবুন্নেছার উন্নতি হয়নি।

অবস্থার অবনতি হলে রোববার তাকে কক্সবাজার জেলা সদর হাসপাতালের আইসোলেশন ওয়ার্ডে ভর্তি করা হয়। সেখান থেকে উন্নত চিকিৎসার জন্য চট্টগ্রামের রেফার করা হয়।

রোববার রাতেই তাকে অ্যাম্বুলেন্সে চট্টগ্রামে নেওয়া হয়। চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালসহ চট্টগ্রাম শহরের বিভিন্ন হাসপাতাল ঘুরেও স্ত্রী জেবুন্নেছাকে কোন হাসপাতালে ভর্তি করতে পারেননি জিয়াউল করিম। প্রায় প্রত্যেক হাসপাতাল থেকে জানানো হয়, করোনাভাইরাস টেস্ট রিপোর্ট ছাড়া রোগী ভর্তি করা হবে না।

উল্লেখ্য, জেবুন্নেছা ৪ সন্তানের মা। তিনি আগে থেকেই হৃদরোগে ভুগছিলেন।

Print Friendly, PDF & Email

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here

six + 16 =