কামরানকে স্মরণীয় করে রাখতে চান আরিফ

0
126

কামরানের মৃত্যুতে এখনো কাটেনি নাগরিক শোক। মহামারী করোনা পরিস্থিতির মধ্যেও বিভিন্ন স্থানে চলছে তার রুহের মাগফিরাত কামনা করে মিলাদ ও দোয়া মাহফিল। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে দল-মতের ঊর্ধ্বে উঠে কামরানের রাজনৈতিক সম্প্রীতি ও মানবিক গুণ নিয়ে স্মৃতিচারণ করছেন অনেকে। ৬৭ বছর বয়সের মধ্যে জনপ্রতিনিধি হিসেবেই ৪১ বছর কাটিয়েছেন কামরান। সিলেট নগরীর মানুষের সঙ্গে ছিল তার আত্মার সম্পর্ক। যে কারণে নির্বাচনে পরাজিত হলেও মানুষের কাছে তিনি ছিলেন ‘জনতার মেয়র’। কামরানের মৃত্যুর পর বিভিন্ন মহল থেকে তার স্মৃতি ধরে রাখার দাবি ওঠে। সেই দাবিতে সাড়া দেন সিলেট সিটি করপোরেশনের মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী। কামরানকে স্মরণীয় করে রাখার উদ্যোগ নেওয়ার ঘোষণা দিয়েছেন তিনি। কামরানের মৃত্যুর পর বর্তমান সিটি করপোরেশনের মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী ছুটে যান তার বাসায়।

জনসেবার মাধ্যমে জীবন কাটিয়ে দেওয়া কামরানকে স্মরণীয় করে রাখার ঘোষণা দেন শোকাতুর আরিফ। আরিফের এই ঘোষণার পর সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে দাবি ওঠে সিলেট সিটি করপোরেশনের সামনের পয়েন্টকে ‘কামরান চত্বর’ হিসেবে ঘোষণা দেওয়ার।

মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী ওই পয়েন্টকে ‘কামরান চত্বর’ ঘোষণা দিয়েছেন বলেও প্রচার চালান অনেকে। কিন্তু ‘কামরান চত্বর’ ঘোষণার বিষয়টি সত্য নয় বলে দাবি করেছেন মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী।  তিনি বলেন, সিটি করপোরেশনের সভায় সব কাউন্সিলরকে নিয়ে এ ব্যাপারে সিদ্ধান্ত নেব।

Print Friendly, PDF & Email

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here

twenty − nineteen =