কিশোরগঞ্জেশামসুলগংএর হাতে সাজু ও তার পরিবারকে হত্যার চেষ্টা

0
231

অপরাধ বিচিত্রাঃ নীলফামারী জেলার কিশোরগঞ্জ উপজেলা০৫নংচাঁদখানা ইউনিয়নের উত্তর চাঁদখানা বসুনিয়াপাড়াগ্রামের মোঃসাজুমিয়া(২৭)পারিবারিক পূর্ব শত্রুতার জের ধরে একই গ্রামের ১,মোঃশামসুল হক (২৭) ২,মোঃশাকিল(২৩) ৩, আব্দুল করিম (৫০)৪, মোছাঃসালেহাবেগম (৪৮) সকলের যোগসাজসে গত ০৪.০৬.২০২০ইং তারিখে আনুমানিক সকাল ০৮.৩০সময়আমি দোলাবাড়ি হতে বাড়ি ফেরার সময়তাহাদের বাড়ির খুলি সংলগ্ন রাস্তায় আসা মাত্র আমার উপর আব্দুল করিম অতর্কিত ভাবে আক্রমণ করে।একপর্যায়ে আমাকে আব্দুল করিম বেধড়কএলোপাতাড়িভাবেমারধর কিল-ঘুসি লাঠি দিয়ে আঘাত করে এবং মাটিতে পড়ে যাওয়া মাত্র দুই হাত দিয়ে গলা চিপে ধরে শ্বাসরুদ্ধ করে হত্যার চেষ্টা করে।আমার আত্ম চিৎকার শুনে আমারবাবা আতিয়ার রহমান তাৎক্ষণিক আমাকে বাঁচানোর জন্য এগিয়ে আসলে শামসুল হক তাহার হাতে থাকা কাঠদিয়েএলোপাতাড়িভাবেমুখমন্ডলে ও শরীরে মারধর করে বিভিন্ন জায়গায় আঘাত করেএবং শক্ত কাঠ দিয়ে মাথার পিছনে হত্যার উদ্দেশ্যে সজোরে আঘাত করলে মাথার মধ্যখানে লাগে গুরুতর রক্তাক্ত জখম করে।

আমার বাবার চিৎকার শুনে আমার মা শাহিনা ও বোন আরফিনামমিনাএগিয়ে আসা মাত্র শাকিল তাহার হাতে থাকা বাঁশের লাঠি দ্বারা আমার মাকে বেধড়কএলোপাতাড়িভাবেমারধর করে নাক মুখ সহ শরীরের বিভিন্ন জায়গায় আঘাত করে।

কিন্তু এক পর্যায়ে তাহার হাতে থাকালাঠি দিয়ে আমার মায়ের বাম চোখে আঘাত করেহত্যার উদ্দেশ্যে তাহার হাতে থাকা বাঁশের লাঠি দিয়ে মাথার অগ্রভাগে কপালের উপরে মারধর করে রক্তাক্ত জখম করে।এমত অবস্থায় আব্দুল করিম বাড়ি থেকে লাঠি নিয়ে আসে আরফিন ও মমিনা কে বেধড়কমারধর করে শরীরের বিভিন্ন জায়গায় জখম করে।

হত্যার উদ্দেশ্যে আর্ফিনার  মাথার ওপর অগ্রভাগে ডানপাশে ও মমিনার মাথার সামনের অংশে কপালের উপরিভাগেমধ্যখানে রক্তাক্ত জখম করে।তাৎক্ষণিকসালেহা বেগম সাজুমিয়ার নাকে কামড়দিয়ে ডান পাশের মাংস ছিঁড়েনিয়ে গুরুতর রক্তাক্ত জখম করে।শামসুলেরহাতেথাকাধান কাটাকাঁচি দ্বারা হত্যার উদ্দেশ্যে আমার মাথার উপরিভাগেলাগে রক্তাক্ত জখম করে।

অতঃপর এই প্রভাবশালী শামসুলক্যাডারবাহিনীরভয়এলাকাবাসী আতঙ্কে থাকে। এলাকাবাসীজানায় প্রতিবাদ করতে গেলে বিভিন্ন ধরনের ভয়-ভীতি মিথ্যা মামলা ও প্রাণ নাশের হুমকি দেয় বলে অনুসন্ধানে জানা যায়।এলাকাবাসীজানায়শামসুলক্যাডারবাহিনী বলে যে থানাপুলিশ আমার পকেটেআর সরকার আমার কিছু করতে পারবে না।

আমাদের আত্ম চিৎকার শুনে ১, গোলামরব্বানি২,মারজানা বেগম ৩, জিয়ারুল ইসলাম ৪. শফিকুল ইসলাম ৫. আরজিনা বেগম সহএলাকাবাসীতাৎক্ষণিকরিকশাভ্যানে করে কিশোরগঞ্জ স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করায় এবং অবস্থা আশঙ্কাজনকহওয়ায়রেপার্ট

করে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করায়। পরবর্তীতে সাজুমিয়া গত ০৭.০৬.২০২০ইং তারিখে কিশোরগঞ্জথানায়৩৪১/৩২৩/৩২৪/৩২৫/৩২৬/৩০৭/৫০৬ধারাদঃবিঃএকটি মামলা দায়ের করেযাহার মামলা নং১/৬৭

Print Friendly, PDF & Email

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here

15 + fifteen =