মোঃআজিজুল হুদা চৌধুরী সুমন পল্লীবন্ধুর আদর্শে উজ্জীবিত জাতীয় পার্টির সৈনিক এবং তরুণ প্রজন্মের বাতিঘর

0
154

 তিনি ঢাকা মহানগরে স-গৌরবের আসনে সমাসীন। তিনি নৈতিক গুণসম্পন্ন দক্ষ সাংগঠনিক শক্তির অধিকারী, ব্যক্তিত্বসম্পন্ন একজন জাতীয় পার্টির নিবেদিত প্রাণ। তিনি তাঁর রাজনৈতিক কর্মতৎপরতা, প্রগতিশীল চিন্তাভাবনা, মুক্তিযুদ্ধের চেতনাধারণকারী, সৃষ্টিশীল কাজে উদ্যোগী, অন্যায়ের বিরুদ্ধে আপোষহীন, ক্রীড়া সংগঠক এবং সামাজিক ন্যায়পরায়ন ব্যক্তি হিসেবে আজকের এই সময়ে একজন যোগ্য রাজনৈতিক নেতার উদাহরণ।তাঁর নেতৃত্বদানের ক্ষমতা, নেতৃত্বের গুনাবলী, সৎচ্চরিত্রাবলী এবং রাজনৈতিক জীবনের বিশাল কর্মযজ্ঞই প্রমাণিত করে তিনি রাজনৈতিক মাঠের একজন কর্মদক্ষ কর্মী এবং জাতীয় পার্টির অঙ্গসংগঠন জাতীয় স্বেচ্ছাসেবক পার্টি ঢাকা মহানগর দক্ষিণ এর সভাপতি।  ছাত্রাবস্থা থেকেই উন্নয়নের স্বপ্নদ্রষ্টা পল্লীবন্ধু হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ এর রাজনৈতিক জীবনের আদর্শকে লালন করে তিনি তাঁর রাজনৈতিক জীবন গড়েছেন। মোঃআজিজুল হুদা চৌধুরী সুমন এর  নৈতিক গুনাবলী অসাধারণ। তাঁর এই নৈতিক গুনাবলীর জন্যই আজকের রাজনীতির মাঠে তিনি একজন জননন্দিত, জনপ্রিয়,আপোষহীন নেতা হিসেবে সকলের নিকট পরিচিত।

তাঁর এই জনপ্রিয়তা থাকার পরও তিনি কখনো ক্ষমতার অপব্যবহার করেনি, অহংকার করেননি।জাতীয় স্বেচ্ছাসেবক পার্টি ঢাকা মহানগর দক্ষিণ এর থানার নেতাকর্মীরা এমন একজন নেতার কর্মী হতে পেরে অহংকার করে, গর্ব করে মোঃআজিজুল হুদা চৌধুরী সুমন এর  নিকট যেকোনো জায়গার জাতীয় পার্টির নেতাকর্মী এবং সাধারণ নাগরিক যেকোন ধরনের সহযোগীতার জন্য তাঁর নিকট স্মরনাপন্ন হলে তিনি তাদেরকে শূন্য ফিরিয়ে দেননি।

তিনি প্রসার করে দেন তাঁর সহযোগিতার হাত। তাঁর এই গুণাবলীর জন্য এই ঢাকা মহানগর দক্ষিণ এর  প্রতিটি থানার নেতাকর্মীদের নিকট আজ মোঃআজিজুল হুদা চৌধুরী সুমন একজন মানবতাবাদী নেতা হিসেবে পরিচিত। তিনি বিশ্বাস করেন তরুণ প্রজন্ম জাতির ভবিষ্যৎ। আগামীর বাংলাদেশের অত্যন্ত প্রহরী এই তরুণ প্রজন্মকে মাদকাসক্ত, জঙ্গিবাদ, সন্ত্রাসবাদ থেকে ফিরিয়ে রাখতে পারলে পথ হারাবে না বাংলাদেশ।

তাই মোঃআজিজুল হুদা চৌধুরী সুমন  সারা বছর বিভিন্ন খেলাধুলায় মাতিয়ে রাখেন এলাকার তরুণ প্রজন্মেকে ক্রিড়া ও সংস্কৃতিতে উজ্জীবিত করেন তরুণ প্রজন্মকে। তিনি দীর্ঘ রাজনৈতিক জীবনে কখনো দললএবং দলের নেতাকর্মীর সাথে বিশ্বাস ভঙ্গ করেননি  তিনি নগরের এ প্রান্ত থেকে ঐ প্রান্তে জাতীয় পার্টির মিছিল মিটিং এবং বিভিন্ন সামাজিক অনুষ্ঠানে স্বেচ্চাসেবক পার্টি  কে সুসংগঠিত করতে ভোর থেকেই ছুটে বেড়ান।

রাজনীতিতে তাঁর এই কর্মদক্ষতার নেতৃত্ব এই সময়ের জাতীয় স্বেচ্ছাসেবক পার্টির জন্য খুবই গুরুত্বপূর্ণ।জাতীয় স্বেচ্ছাসেবক পার্টির চরম দুঃসময়ে তিনি ছিলেন অগ্রসৈনিক। মোঃআজিজুল হুদা চৌধুরী সুমন  একজন অসাম্প্রদায়িক নেতা। হিন্দু, মুসলিম, বৌদ্ধ খ্রিষ্টান সবার জন্য তাঁর দরজা সব সময় উন্মুক্ত।

তিনি পল্লীবন্ধু হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ এর স্বপ্ন কে বাস্তবায়ন করার লক্ষ্যে নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছেন। তিনি একটি শক্তিশালী সংগঠন প্রতিষ্টায় বিশ্বাসী। তাঁর হৃদয়ে বাংলাদেশ, চেতনায় মুক্তিযুদ্ধ, আদর্শে পল্লীবন্ধু, রাজনৈতিক অনুসরনে জননেতা লিয়াকত হোসেন খোকা এমপি তিনি জাতীয় পার্টির অত্যন্ত প্রহরী।

মোঃআজিজুল হুদা চৌধুরী সুমন জাতীয় স্বেচ্ছাসেবক পার্টি ঢাকা মহানগর দক্ষিণ এর সদস্য সচিব পদের দায়িত্ব পালন করা থেকে শুরু করে  এখন জাতীয় স্বেচ্ছাসেবক পার্টি ঢাকা মহানগর দক্ষিণ এর সভাপতি পদের দায়িত্ব সততা ও নিষ্ঠার সাথে পালন করছেন। তিনি গত ২৭ডিসেম্বর জাতীয়  স্বেচ্ছাসেবক পার্টি কেন্দ্রীয় নির্বাহী কমিটির ত্রি-বার্ষিকী সম্মেলনে অনুমোদিত কমিটিতে  সহসভাপতি পদে পদোন্নতি আশা করেন।

আমরা  তরুণ প্রজন্মের হয়ে বিশ্বাস করি,জাতীয় স্বেচ্ছাসেবক পার্টির সাংগঠনিক এই দুঃসময়ে ঐক্যবদ্ধ জাতীয় স্বেচ্ছাসেবক পার্টি  গড়ে তুলার লক্ষ্যে, কাউয়া, কুকিল মুক্ত এবং একটি শক্তিশালী জাতীয় স্বেচ্ছাসেবক পার্টি কেন্দ্রীয় নির্বাহী কমিটি   প্রতিষ্টার লক্ষ্যে মোঃআজিজুল হুদা চৌধুরী সুমন  কে জাতীয় স্বেচ্ছাসেবক পার্টি কেন্দ্রীয় নির্বাহী কমিটি তে সহসভাপতির দায়িত্ব দেওয়া খুব প্রয়োজন। এখন মোঃআজিজুল হুদা চৌধুরী সুমন  কোন ব্যক্তি নয়, তিনি এখন তরুণ প্রজন্মের আইকন ।জাতীয় পার্টির   বিশ্বস্থ নিবেদিত প্রাণ। তিনি পল্লীবন্ধুর সৈনিক।জননেতা গোলাম মোহাম্মদ কাদের এমপির হাতিয়ার।

Print Friendly, PDF & Email

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here

eight + 14 =