মুরাদনগরে এমপির ব্যাংকে চাকরি জাহির করে ফাঁকিবাজি করছেন জাকির চেয়ারম্যান

0
204

মো: ইমরান হোসেন: কুমিল্লা জেলা মুরাদনগর উপজেলা ২১ নং বাবুটিপাড়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মো: জাকির হোসেন মুন্সী এর বিরুদ্ধে ফাঁকিবাজ সহ নানা অনিয়মের অভিযোগ উঠেছে। এলাকা সুত্রে: জানা যায় সরকারি নিয়মনীতির কোনো তোয়াক্কা না করে মাসের পর মাস অফিস ফাঁকি দিয়ে চলছেন ইউপি চেয়ারম্যান মো: জাকির হোসেন মুন্সী। ফলে ইউনিয়ন পরিষদের গুরুত্বপূর্ণ কার্যক্রম অনেকটা থমকে আছে। ইউনিয়ন পরিষদের সেবা নিতে এসেও চরম দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে হাজার হাজার মানুষকে। তিনি নির্বাচিত হওয়ার পর থেকে বিভিন্নভাবে অনিয়ম-দুর্নীতি ও স্বেচ্ছাচারিতা লাগামহীন চালিয়ে যাচ্ছেন। কাবিখা, ভিজিডি, ভিজিএফসহ বিভিন্ন প্রকল্পের টাকাও আত্মসাৎ করছেন। নিয়মিত পরিষদের সভা না করে সদস্যদের সম্মানী ভাতা না দিয়ে। বিলাসবহুল গাড়ি, বাড়ি নিয়ে ভোগবিলাসে মগ্ন থাকেন জাকির হোসেন চেয়ারম্যান, ফলে সাধারণ মানুষ তাঁকে কাছে পায় না।

জাকির হোসেন মুন্সী স্থানীয় এমপি  ইউছুফ আব্দুল্লাহ হারুন এফসিএ মহদয়ের নিজ ব্যাংকে নিয়মিত চাকরি ও এমপির সাথে ভালো সম্পর্ক জাহির করে এই অনিয়ম গুলো খুব সহজে করছেন বলেও সাংবাদিকদের জানায় এলাকাবাসী।

ইতিমধ্যে ফাঁকিবাজ চেয়ারম্যান হিসেবে পরিচিত লাভ করেন জাকির হোসেন মুন্সী। টানা দুই মেয়াদে ক্ষমতায় থেকে বাবুটিপাড়া ইউপি চেয়ারম্যান মো: জাকির হোসেন মুন্সী বিভিন্ন প্রকল্প থেকে প্রায় ১৩ কোটি টাকা আত্মসাৎ করেছেন। প্রধানমন্ত্রীর পক্ষ থেকে করোনাকালীন সময়ে যেসব সহায়তা দেয়া হয়েছে তার অধিকাংশই গরিব-দু:খীর মাঝে বিতরণ না করে নিজেই আত্মসাৎ করেছেন।

এলাকার বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের সভাপতি হিসেবে দায়িত্ব নিয়ে চেয়ারম্যান বিভিন্ন অজুহাতে প্রতিষ্ঠানের তহবিল থেকে অর্থ হাতিয়ে নিয়েছেন। বিনামূল্যের বৈদ্যুতিক মিটার দেয়ার কথা থাকলেও জনপ্রতি প্রায় পাঁচ হাজার হতে পঞ্চাশ হাজার টাকা করে নিয়েছেন। এতো দুর্নীতি করেও অদৃশ্য কারণে তিনি এখনো বহাল তবিয়তে রয়েছেন।

Print Friendly, PDF & Email

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here

18 − four =