রিভিউ ‘বাঁচিয়ে’ বিপদ বাড়িয়ে চা বিরতিতে বাংলাদেশ

0
209

অধিনায়ক মুমিনুল হকের উইকেট হারালেও দ্বিতীয় সেশনটা ছিল বাংলাদেশের নিয়ন্ত্রণেই। কিন্তু রিভিউ নেয়ার সিদ্ধান্ত নিতে ভুল করে প্রথম সেশনের মতো দ্বিতীয়টিতেও দখল হারাল টাইগাররা। শুধু সেশনের দখলই নয়, পিচে দারুণভাবে মানিয়ে নেয়া সাদমান ইসলামের উইকেট হারিয়ে নিজেদের বিপদটাও বাড়িয়েছে স্বাগতিকরা।

অথচ অভিষিক্ত আম্পায়ার শরফৌদ্দুল্লাহ ইবেন সৈকতের নেয়া লেগ বিফোরের সিদ্ধান্তটি রিভিউ নিলেই বেঁচে যেতেন সাদমান, টিকে থাকত ক্যারিয়ারের প্রথম সেঞ্চুরির সম্ভাবনা। তা হয়নি, দৃঢ় ব্যাটিংয়ে ৫৯ রান করে সাজঘরে ফিরে যেতে হয়েছে সাদমানকে। চা পানের বিরতিতে যাওয়ার সময় ৫৮ ওভার শেষে বাংলাদেশের সংগ্রহ ৪ উইকেটে ১৪০ রান। উইকেটে আছেন দুই অভিজ্ঞ তারকা সাকিব আল হাসান ও মুশফিকুর রহীম।

ইনিংসের ৫১তম ওভারে মুমিনুল ২৬ রান করে সাজঘরে ফিরলে ব্যাটিংয়ে আসেন মুশফিক। মুখোমুখি দ্বিতীয় বলে রানের খাতা খোলেন তিনি, যা তাকে বসায় তামিমের সমান্তরালে। পরে ষষ্ঠ বলে স্ট্রেইট ড্রাইভে এক রান নিয়ে তামিমকে ছাড়িয়ে আবারও সিংহাসনে বসেন মুশফিক। বাংলাদেশের পক্ষে টেস্টে ৪ হাজার রান করা ব্যাটসম্যান এ দুজনই।

মুশফিক উইকেটে যাওয়ার আগে মুমিনুল হক ও সাদমান ইসলাম গড়েছিলেন দুর্দান্ত জুটি। তারা দুজন মিলে ২৭.৪ ওভারে যোগ করেন ৫৩ রান। ক্যারিবীয় বোলারদের খুব একটা সুযোগ না দিয়েই এগুচ্ছিলেন তারা। শ্যানন গ্যাব্রিয়েল বাউন্সারের পশরা সাজালেও, সেগুলো দারুণভাবে সামলে নেন অধিনায়ক মুমিনুল। কিন্তু তিনি আটকা পড়েন জোমেল ওয়ারিকানের বাঁহাতি স্পিনে।

ব্যাটিংয়ে নামার পর থেকে খুব একটা হাত খুলে খেলার চেষ্টা করেননি মুমিনুল। কিন্তু ব্যক্তিগত ২০ রান পেরিয়ে যাওয়ার পরই হাওয়ায় ভাসিয়ে খেলতে শুরু করেন তিনি। পরপর দুই ওভারে দুইটি শট পড়ে খালি জায়গায়। ইনিংসের ৫১তম ওভারে ওয়ারিকানের বলে উঠিয়ে মারার চেষ্টায় শর্ট মিডউইকেটে দাঁড়ানো জন ক্যাম্পবেলের হাতে ধরা পড়েন ৯৭ বলে ২৬ রান করা মুমিনুল।

অধিনায়ক ফিরে যাওয়ার আগেই ক্যারিয়ারের দ্বিতীয় ফিফটি তুলে নিয়েছিলেন সাদমান। ২০১৮ সালে নিজের অভিষেক টেস্টে এই ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে ৭৬ রান করেছিলেন তিনি। সেই ম্যাচের পর আরও ১০ ইনিংস ফিফটিহীন থাকার পর আবার পঞ্চাশের দেখা পেলেন সাদমান। নিজের প্রথম ফিফটি করতে সাদমান খেলেছিলেন ১৪৭ বল, আজ তিনি মাইলফলকে পৌছেছেন ১২৮ বল খেলে।

সাদমানের ব্যাটিংয়ে কখনওই মনে হয়নি তাড়াহুড়ো করছেন তিনি। চা পানের বিরতির যখন আর মিনিট পাঁচেক সময় বাকি, তখন ওয়ারিকানের ফুল লেন্থের বলে সুইপ খেলতে গিয়ে ব্যাটে-বলে করতে পারেননি তিনি। বল গিয়ে আঘাত হানে পায়ে। ক্যারিবীয়দের জোরালো আবেদনে সাড়া দেন অভিষিক্ত আম্পায়ার সৈকত।

অগ্রজ সতীর্থ মুশফিকুর রহীমের সঙ্গে কথা রিভিউ না করার সিদ্ধান্ত নেন ৬ চারের মারে ১৫৪ বলে ৫৯ রান করা সাদমান। কিন্তু টিভি রিপ্লেতে দেখা যায় সেই বলটি লেগস্ট্যাম্পের প্রায় ৬ ইঞ্চি দূর দিয়ে বের হয়ে যেত। অর্থাৎ রিভিউটি নিলে বেঁচে যেতেন সাদমান এবং বাংলাদেশও বিরতিতে যেতে পারত শক্ত অবস্থানে থেকে।

তা আর হয়নি! প্রথম সেশনে ২৯ ওভারে ২ উইকেটে ৬৯ রান করার পর দ্বিতীয় সেশনেও ২৯ ওভার খেলে ৭১ রান করতে ২ উইকেট হারিয়েছে বাংলাদেশ। তৃতীয় সেশনের শুরুতে সাকিব খেলতে নামবেন ৩ রান নিয়ে, মুশফিকের নামের পাশে রয়েছে ৯ রান।

Print Friendly, PDF & Email

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here

twelve − ten =