পরকীয়ায় ব্যর্থ হয়ে মা-মেয়েকে কুপিয়ে জখম :অভিযুক্ত পরান গ্রেফতার

0
317

আরিফুল ইসলাম (স্টাফ রিপোর্টার):রাজধানীর কদমতলী থানাধীন পূর্ব শনির আখড়ার শেখদী এলাকায় মা-মেয়েসহ তিনজনকে কুপিয়ে হত্যাচেষ্টার ঘটনায় অভিযুক্ত জাহাঙ্গীর আলম পরানকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন র‌্যাব । 

মঙ্গলবার (১৬ ফেব্রুয়ারি) কারওয়ান বাজারের র‌্যাব মিডিয়া সেন্টারে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে র‌্যাব-১০ এর অধিনায়ক (সিও) অতিরিক্ত ডিআইজি মাহফুজুর রহমান গনমাধ্যমকে এসব তথ্য জানান। 

 

ডিআইজি জানান,১৬ ফেব্রুয়ারি   সকালে র‌্যাব-১০ এর একটি আভিযানিক দল নারায়নগঞ্জ জেলার সিদ্দিরগঞ্জ থানাধীন সানারপাড় এলাকায় বিশেষ অভিযান পরিচালনা করে  পলাতক আসামী জাহাঙ্গীর আলম @ পরান (৪২) কে গ্রেফতার করে। এসময় তার নিকট হতে ০১টি মোবইল ফোন উদ্ধার করা হয়।

মাহফুজুর রহমান জানান, আহত রুহুল কুদ্দুস বাবু (৩৫) ও লম্পট জাহাঙ্গীল আলম @ পরান (৪২) প্রায় ৭/৮ বছর পূর্বে একই রুমে বসবাস করতো। তখন পাশের ফ্লাটের ভাবী মোঃ মাসুদ কিবরিয়ার স্ত্রী ইয়াসমিন আক্তার (৩৫) এর প্রতি লম্পট পরানের কুদৃষ্টি পরে, এতে বাঁধা দেয় রুহুল কুদ্দুস বাবু। এ কারনে লম্পট পরানকে ঐ বাড়ি থেকে বের করে দেয় বাড়ির মালিক। এতে ক্ষুদ্ধ হয়ে পরান বিভিন্ন সময় বিভিন্ন ভাবে ইয়াসমিন আক্তার ও তার পরিবারকে ক্ষতি করার চেষ্টা করে। আবারও বাঁধা হয়ে দাড়ায় রুহুল কুদ্দুুস বাবু।

এর ফলে পূর্বশত্রুতার জেরধরে লম্পট পরান গত রবিবার সন্ধ্যায় পরিকল্পিতভাবে হত্যার উদ্দেশ্যে চাপাতিসহ বাবুর বাসায় যায়। রুহুল কুদ্দুস বাবু দরজা খুলতেই লম্পট পরান বাবুকে হত্যার উদ্দেশ্যে চাপাতি দিয়ে এলোপাতারি কুপিয়ে বাবুর মুখে, কানে, চোখের উপরে, মাথায়, ঘাড়ে ও ডান হাতের তালুতে গুরতর জখম করে। বাবুর আর্ত চিৎকার শুনে ইয়াসমিন আক্তার ও তার মেয়ে মাহামুদা মেহেরিন বাবুকে বাচাতে আসলে পরান প্রথমে মেয়ে মাহামুদাকে তার ডান হাতে ও পরে ইয়াসমিন আক্তারের মাথায় গুরতর জখম করে পালিয়ে যায়। প্রতিবেশীরা গুরতর জখম অবস্থায় ০৩ জনকে হাসপাতালে নিয়ে যায়।

এঘটনায় আহত রুহুল কুদ্দুস বাবুর বড় বোন বিউটি বেগম বাদী হয়ে যাত্রাবাড়ী থানায় একটি নিয়মিত মামলা রুজু করেন। মামলা রুজু পর থেকে ব্যার-১০ একটি আভিযানিক দল এজাহার নামীয় পলাতক আসামী পরানকে গ্রেফতারে অভিযান শুরু করে। এরই প্রেক্ষিতে   আনুমানিক সকাল ০৮:০০ ঘটিকার সময় সিদ্দিরগঞ্জ থানার সানারপাড় এলাকা হতে জাহাঙ্গীর আলম @ পরানকে (৪৫)কে গ্রেফতার করতে সক্ষম হয়। 

এদিকে এখন পর্যন্ত আহত বাবু ও ইয়াসমিন ঢাকা মেডিকেলে চিকিৎসাধীন আছেন। তারা সবাই যাত্রাবাড়ির শনির আখড়ার শেখদী এলাকায় ভাড়া থাকেন।

Print Friendly, PDF & Email

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here

20 − 16 =