সুনামগঞ্জে মদ ও গাঁজা উদ্ধার: ৪ নারীসহ গ্রেফতার ৬

0
237

মোজাম্মেল আলম ভূঁইয়া- হাওরাঞ্চল প্রতিনিধি, সুনামগঞ্জ: সুনামগঞ্জে পৃথক অভিযান চালিয়ে বিপুল পরিমান মদ ও গাঁজা উদ্ধার করেছে পুলিশ ও র‌্যাব। এঘটনার প্রেক্ষিতে ৩জন নারী মাদক ব্যবসায়িসসহ ৩বছরের সাজাপ্রাপ্ত ৩ আসামীকেও গ্রেফতার করা হয়েছে। গ্রেফতার হওয়া নারী মাদক ব্যবসায়িরা হলেন- জেলার দক্ষিণ সুনামগঞ্জ উপজেলার শিমুলবাক ইউনিয়নের ধনপুর গ্রামের মোহাম্মদ আলীর স্ত্রী মাদক স¤্রাজ্ঞী মোছাম্মদ আম্বিয়া বেগম (৪৫) ও পার্শবর্তী দিরাই উপজেলার রাজানগর ইউনিয়নের গচিয়া গ্রামের ফুলমতি রবি দাস (৪২),পানমতি রবি দাস (৩৮)। আর গ্রেফতারকৃত ৩ বছরের সাজাপ্রাপ্ত আসামীরা হলেন- জেলার জগন্নাথপুর উপজেলার চিতুলিয়া গ্রামের মৃত চারু মিয়ার ছেলে শাহিন মিয়া (৩৭) ও পাশর্^বর্তী স্বজনশ্রী গ্রামের মৃত আব্দুল ওয়াহিদ মিয়ার ছেলে মাওলানা নেছার উদ্দিন (৩৫), তার স্ত্রী সৈয়দা আছমা ফেরদৌস রাহী (৩০)। আজ শনিবার (২০শে ফেব্রæয়ারি) দুপুরের আদালতের মাধ্যমে নারী মাদক ব্যবসায়িসহ সাজাপ্রাপ্ত আসামীদেরকে কারাঘারে পাঠানো হয়েছে।

এব্যাপারে পুলিশ ও র‌্যাব সূত্রে জানা যায়- র‌্যাব ৯এর সুনামগঞ্জ ক্যাম্পের দায়িত্বে থাকা সহকারী পুলিশ সুপার মোঃ আব্দুল্লাহর নেতত্বে জেলার দক্ষিণ সুনামগঞ্জ উপজেলার শিমুলবাক ইউনিয়নের ধনপুর গ্রামের পাকা রাস্তায় অভিযান চালিয়ে ৭ কেজিসহ মাদক স¤্রাজ্ঞী আম্বিয়া বেগমকে গ্রেফতার করে

গতকাল শুক্রবার সন্ধ্যায় থানায় সোর্পদ করা হয়। এঘটনার প্রেক্ষিতে র‌্যাব বাদী হয়ে রাতেই মাদক স¤্রাজ্ঞী আম্বিয়া বেগমের বিরুদ্ধে থানায় মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে একটি মামলা দায়ের করা হয়।

অপরদিকে দিরাই উপজেলার গাচিয়া গ্রামের দীর্ঘদিন চোলাই মদের জমজমাট বানিজ্য চলছিল। গতকাল শুক্রবার ভোরে পুলিশ পৃথক অভিযান চালিয়ে গাচিয়া গ্রামের পানমতি রবি দাসের নিজবাড়ির উঠানের মাঠির নিচে লুকিয়ে রাখা প্লাস্টিকের ড্রাম বোঝাই ১৬০লিটার চোরাই মদসহ মদ তৈরি উপকরণ উদ্ধার করে।

পরে মাদক ব্যবসায়ি পানমতি রবি দাসকে গ্রেফতার করে তার দেওয়া তথ্য অনুযায়ী পাশর্^বর্তী বাবাশাহর মাজার এলাকা থেকে ফুলমতি রবি দাসকে গ্রেফতার করা হয়। এঘটনার প্রেক্ষিতে গতকাল শুক্রবার সন্ধ্যায় তাদের বিরুদ্ধে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে মামলা দায়ের করা হয়।

এছাড়া জগন্নাথপুর উপজেলার চিতুলিয়া গ্রামের মৃত চারু মিয়ার ছেলে শাহিন মিয়া ও পাশর্^বর্তী স্বজনশ্রী গ্রামের মৃত আব্দুল ওয়াহিদ মিয়ার ছেলে মাওলানা নেছার উদ্দিন,তার স্ত্রী সৈয়দা আছমা ফেরদৌস রাহীকে গতকাল শুক্রবার সন্ধ্যায় গ্রেফতার হয়।

জগন্নাথপুর থানার এসআই রাজিব রহমান এঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে সাংবাদিকদের বলেন- নারী নির্যাতনসহ আরো একাধিক মামলায় গ্রেফতারকৃত ৩ আসামীকে ৩ বছরের সাজা দিয়েছে আদালত। তারা দীর্ঘদিন পলাতক ছিল।     

Print Friendly, PDF & Email

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here

13 − three =