মহিলা ফায়ারফাইটার ১ম ব্যাচের ট্রেনিং ভিজিট ও ফটোসেশনে অংশ নিলেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

0
118

ফায়ার সার্ভিসে নিয়োগপ্রাপ্ত মহিলা ফাইফাইটার প্রথম ব্যাচের প্রশিক্ষণ পরিদর্শন (ট্রেনিং ভিজিট) ও ফটোসেশনে অংশগ্রহণ করলেন স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মাননীয় মন্ত্রী জনাব আসাদুজ্জামান খান, এমপি। ৭ ডিসেম্বর বৃহস্পতিবার সকাল সাড়ে ১১টায় এ উপলক্ষ্যে ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্স ট্রেনিং কমপ্লেক্স, মিরপুরে একটি সংক্ষিপ্ত অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। সকাল ১১টা ৩০ মিনিটে অনুষ্ঠানস্থলে এসে পৌঁছালে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীকে ফুলেল শুভেচ্ছা জানান ফায়ার সার্ভিসের মহাপরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মোঃ মাইন উদ্দিন, বিএসপি (বার), এনডিসি, পিএসসি, জি, এম ফিল। অনুষ্ঠানের বিশেষ অতিথি সুরক্ষা সেবা বিভাগের সচিব জনাব মোঃ আবদুল্লাহ আল মাসুদ চৌধুরী এ সময় উপস্থিত ছিলেন। এরপর মাননীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী ও সুরক্ষা সেবা বিভাগের সচিবকে নিয়ে অধিদপ্তরের মহাপরিচালক অভিবাদন মঞ্চ আরোহন করেন। এ সময় ডিএডি ফয়সালুর রহমানের নেতৃত্বে একদল চৌকস অগ্নিসেনা মাননীয় মন্ত্রীকে গার্ড অব অনার প্রদান করেন। অভিবাদন গ্রহণ করে মাননীয় মন্ত্রী ফায়ার সার্ভিসে প্রথমবারের মতো নিয়োগপ্রাপ্ত ফায়ারফাইটার (মহিলা) ১ম ব্যাচের সাথে ফটোসেশন পর্বে অংশগ্রহণ করেন।ফটোসেশনের পর অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি মাননীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী গণমাধ্যম কর্মীদের উদ্দেশে প্রদত্ত তাঁর বক্তব্যে সরকারের অন্যান্য ডিপার্টমেন্টের মতো ফায়ার সার্ভিসেও মহিলা ফায়ারফাইটার নিয়োগের প্রয়োজনীয়তা ও গুরুত্ব তুলে ধরেন। এ সময় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, “সব ক্ষেত্রেই সাহসিকতার সাথে দায়িত্ব পালন করছেন নারীরা। একইভাবে এখন থেকে সকল দুর্যোগে মহিলা ফায়ারফাইটারগণও নিজেদের নিয়োজিত করার মাধ্যমে দেশের সেবা করার সুযোগ পাবেন।” তিনি আশা প্রকাশ করেন, মহিলা ফায়ারফাইটার নিয়োগের এই ধারা ভবিষ্যতেও চলমান থাকবে। এরপর তিনি সাংবাদিকদের বিভিন্ন প্রশ্নের উত্তর দেন। এরপর সুরক্ষা সেবা বিভাগের সচিব এবং মাননীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী নবনিযুক্ত মহিলা ফায়ারফাইটারদের সাথে শুভেচ্ছা বিনিময় করেন এবং চলমান প্রশিক্ষণ কার্যক্রমের খোঁজখবর নেন।

ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্স অধিদপ্তরের মহাপরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মোঃ মাইন উদ্দিন গণমাধ্যম কর্মীদের জানান, মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর সানুগ্রহ নির্দেশনায় ‘ফায়ারম্যান’ পদের নাম পরিবর্তন করে ‘ফায়ারফাইটার’ করা হয়। এর ধারাবাহিকতায় এই পদে মহিলা কর্মীদের নিয়োগ দানের প্রক্রিয়া শুরু হয়।

অনুষ্ঠানে ১৫ মহিলা ফায়ারফাইটারের মধ্যে প্রিয়াঙ্কা হালদার, ইয়াসমিন খাতুন ও নাজমুন নাহার গণমাধ্যমকর্মীদের কাছে তাদের অনুভূতি ব্যক্ত করেন।

উল্লেখ্য, এ বছরের ২০ জুন ফায়ারফাইটার নিয়োগের জন্য নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করা হয়। নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি অনুযায়ী ফায়ারফাইটার (মহিলা) পদে ২,৭০৭ জন আবেদনকারীর মধ্যে প্রাথমিক যাচাই-বাছাই, শারীরিক যোগ্যতা ও মেডিকেল টেস্ট, লিখিত পরীক্ষা ও মৌখিক পরীক্ষার মাধ্যমে এই ১৫ জনকে চূড়ান্তভাবে ফায়ারফাইটার (মহিলা) পদে নিয়োগের জন্য নির্বাচিত করে নিয়োগপত্র জারি করা হয়।

১৮ নভেম্বর মহিলা ফায়ারফাইটারগণ আনুষ্ঠানিকভাবে ফায়ার সার্ভিসে যোগদান করেন। এখন তাদের বুনিয়াদি প্রশিক্ষণ চলছে। ইতিপূর্বে ফায়ার সার্ভিসে অফিসার পদে মহিলা কর্মকর্তা নিয়োগ দেয়া হলেও ফায়ারফাইটার পদে মহিলাদের নিয়োগ এটিই প্রথম।

Print Friendly, PDF & Email

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here

16 − nine =