ছিনতাই ঠেকাতে পুলিশ ওঁত পেতে: ডিএমপি কমিশনার

0
1194

ঢাকা মহানগর পুলিশ (ডিএমপি) কমিশনার আছাদুজ্জামান মিয়া বলেছেন, ‘ছিনতাই, অজ্ঞান পার্টি ও মলমপার্টির সদস্যদের অপতৎপরতা ঠেকাতে সাদা পোশাকে পুলিশ ওঁত পেতে আছে। পুলিশের এ ধরনের তৎপরতার কারণে রমজান মাসে এখনও পর্যন্ত রাজধানীতে ছিনতাইয়ের কোনো ঘটনা ঘটেনি। একজন মানুষও অজ্ঞান পার্টির খপ্পরে পড়েনি।’ সোমবার দুপুরে রাজধানীর মহাখালী বাস টার্মিনালে আইনশৃঙ্খলা ও ট্রাফিক ব্যবস্থাপনা সংক্রান্ত মতবিনিময় সভায় তিনি এ কথা বলেন।
ডিএমপি কমিশনার বলেন, ‘আগে বাস টার্মিনালগুলোর সামনে ছিনতাই হতো। ব্যাংক থেকে টাকা তোলার পর ছিনতাইয়ের ঘটনা ঘটতো। রোজার ১৬ দিনে এ ধরনের অপরাধ ঘটেনি। সব জায়গায় সাদা পোশাকে পুলিশ রয়েছে। ছিনতাইকারীদের আনাগোনা দেখলেই তাদের ধরে ফেলা হবে।’
রমজান ও ঈদের আগে ঢাকায় প্রচণ্ড যানজট প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ‘ঢাকা শহরে রাস্তার মাঝখানে বাস দাঁড় করিয়ে যাত্রী নেওয়া হয়। এতে  প্রাইভেটকার, রিকশা, সিএনজি অটোরিকশার দীর্ঘ লাইন পড়ে পুরো রাস্তা আটকে যায়। যদি ফ্র্যাঞ্চাইজি পদ্ধতিতে একটি কোম্পানির বাস একই রুটে চলে, তখন কিন্তু এই প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টি করে আর যাত্রী তুলতে হবে না। ওই পদ্ধতিতে একই রুটের বাস মালিকরা আয় ভাগ করে নেবেন। এটা করতে পারলে রাস্তা বন্ধ করে বাস থামিয়ে যাত্রী নেওয়ার অসাধু প্রতিযোগিতা বন্ধ হবে। যানজটও কমবে।’
মতবিনিময় সভায় বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন সমিতির মহাসচিব খন্দকার এনায়েত উল্যাহ খান বলেন, ‘ঈদে হকারের বেশে অজ্ঞান পার্টি-মলম পার্টির সদস্যরা ঘরমুখী যাত্রীদের খাবারে চেতনানাশক দ্রব্য মিশিয়ে দেয়। এজন্য বাসে হকার উঠতে নিষেধাজ্ঞা দেওয়া হয়েছে। ঈদে অতিরিক্ত ভাড়া আদায় বন্ধে প্রতিটি কাউন্টারে ভাড়ার তালিকা টাঙিয়ে দেওয়া হবে। বাস মালিক সমিতির পর্যবেক্ষণ দল টার্মিনালে তদারক করবে। এর পাশাপাশি লক্কড়-ঝক্কড় বাস না নামাতে নির্দেশনা পাঠানো হবে। বাসের ছাদে যাত্রী ওঠাও নিষিদ্ধ করা হয়েছে।’
ঈদের আগে-পরে তিন দিন বঙ্গবন্ধু সেতুতে টোল আদায় বন্ধের আহ্বান জানিয়ে এনায়েত উল্যাহ খান বলেন, ‘ঈদের সময় এলেঙ্গা থেকে শুরু করে টাঙ্গাইল পর্যন্ত যানজট থাকে। বঙ্গবন্ধু সেতুতে একটি গাড়ির টোল আদায়ে সময় লাগে। অথচ ওই সময়টায় বাম্পার টু বাম্পার গাড়ি চলে। এতে করে দীর্ঘ যানজট হয়। তাই ঈদের তিন দিন আগে ও পরে টোল আদায় বন্ধ রাখা উচিত।’
সভায় ডিএমপির অতিরিক্ত কমিশনার (ট্রাফিক) মোসলেহ উদ্দিন আহমেদ, অতিরিক্ত কমিশনার (ক্রাইম অ্যান্ড অপস) মিজানুর রহমানসহ বাস মালিক সমিতির নেতারা বক্তব্য দেন।

Advertisement
Advertisement

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here