তথ্যশূন্য রংপুর সরকারি কলেজের ওয়েবসাইট শিক্ষার্থীদের ভোগান্তি

0
512

জয় সরকার ঃ তথ্য প্রযুক্তির এই যুগেও চাহিদা মতো তথ্য দিতে ব্যর্থ হচ্ছে রংপুর সরকারি কলেজের অফিসিয়াল ওয়েবসাইটটি। প্রায় ১৬ হাজার শিক্ষার্থীর জন্য তথ্য জানার অন্যতম মাধ্যম এই ওয়েবসাইটি (যঃঃঢ়://ৎমপ.মড়া.নফ/) আপডেট করা হয় না নিয়মিত। ফলে কলেজে ভর্তি ও ফলাফল প্রকাশসহ কলেজের বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ অনুষ্ঠান পালন সংক্রান্ত তথ্য থেকে দিনের পর দিন বঞ্চিত হচ্ছেন কলেজের শিক্ষার্থীরা। তাই তথ্য সম্বলিত পরিপূর্ণ একটি ওয়েবসাইট দাবি শিক্ষার্থীদের।
ওয়েবসাইটটি অনুসন্ধান করে দেখা যায়, একাডেমিক ক্যালেন্ডার, সিলেবাস, ভর্তি, লাইব্রেরী, ফলাফলসহ সকল অপশন তথ্য শূণ্য। এছাড়া বিভাগগুলো স¤পর্কে হালনাগাদ করা হয়নি কোনো তথ্য। শুধুমাত্র বিভাগীয় প্রধানসহ শিক্ষকদের সংক্ষিপ্ত তথ্য দেওয়া রয়েছে। এর মধ্যে আবার অনেক বিভাগে নতুন মুখ যোগদান করলেও তা হালনাগাদ করা হয়নি। অনেক জায়গায় পুরোনো শিক্ষক ও বিভাগীয় প্রধানদের ছবি আপলোড করা রয়েছে। এছাড়াও ব্যাচ ও শিক্ষক সংখ্যাসহ সংশ্লিষ্ট বিভাগটির বিষয়ে বিস্তারিতভাবে হালনাগাদেরও ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়নি। ওয়েবসাইটটির হোমপেজে নিউজ ও ইভেন্ট নামে যে অপশন রয়েছে সেখানে সর্বশেষ তথ্য হালনাগাদ করা হয়েছে ২০১৫ সালের ৩০ এপ্রিল। এছাড়া ‘তথ্যশূণ্য রংপুর সরকারি কলেজের ওয়েবসাইট’ শিরোনামে স্থানীয় একটি দৈনিক পত্রিকায় সংবাদ প্রকাশের পর ৫ অক্টোবর নোটিশ বোর্ডে তথ্য হালনাগদ করা হলেও অন্যান্য অপশনে কোনো তথ্য হালনাগাদ করা হয়নি। এর আগে ওয়েবসাইটে সর্বশেষ তথ্য হালনাগাদ করা হয়েছিলো ২০১৭ সালের ২৩ জুলাই। অথচ এর মধ্যে কলেজের একাদশ শ্রেণীর ভর্তির কার্যক্রম, অনার্স প্রথম বর্ষের ইনকোর্স পরীক্ষা, রেজিস্ট্রেশন, ফাইনাল পরীক্ষাসহ কলেজের অন্যান্য বর্ষের গুরুত্বপূর্ণ বিভিন্ন একাডেমিক কার্যক্রম সম্পন্ন হলেও সে সম্পর্কে কোনো তথ্য ওয়েবসাইটে হালনাগাদ করা হয়নি।
শিক্ষার্থীদের অভিযোগ, ইন্টারনেটের সুবাদে সারা দুনিয়া যখন মানুষের হাতের মুঠোয় তখনও কলেজের একটি ওয়েবসাইট থাকার পরও তারা সেটির মাধ্যমে প্রয়োজনীয় তথ্য পাচ্ছেন না। বিভিন্ন রকম একাডেমিক তথ্য সংগ্রহ করতে তাদের নানা রকম ভোগান্তির শিকার হতে হচ্ছে। বিভাগের সংশ্লিষ্ট শিক্ষকদের সাথে দেখা করে সেই তথ্য সংগ্রহ করতে হয়। অনেক সময় শিক্ষকরাও সঠিত তথ্য দিতে ব্যর্থ হচ্ছেন। এছাড়া বিভিন্ন সময়ে কলেজে বিভিন্ন অনুষ্ঠান পালন করা হয়। অথচ সে সম্পর্কে অনেক শিক্ষার্থী কিছু জানতেই পারে না। তাই সকল তথ্য সম্বলিত পরিপূর্ণ একটি ওয়েবসাইট দাবি শিক্ষার্থীদের। কলেজের শিক্ষার্থী ও ছাত্রলীগ নেতা মো. আবু সাঈদ রিমন, মাহবুব আলম সুজন এবং একেএম আব্দুল মুহিত বলেন, অন্যান্য কলেজের থেকে আমাদের কলেজের আইটি সেক্টর অনেক পিছিয়ে। কোনো শিক্ষা-প্রতিষ্ঠানকে বর্তমান বিশ্বের সঙ্গে তাল মিলিয়ে চলতে হলে তার অফিসিয়াল ওয়েবসাইট অনেক সমৃদ্ধ হতে হয়, যেন ঘরে বসে একজন শিক্ষার্থী সেই প্রতিষ্ঠান স¤পর্কে ভালো ধারণা নিতে পারে। কিন্তু আমাদের কলেজের ওয়েবসাইটটি সেই চাহিদা পূরণ করতে এক রকম ব্যর্থ। আশ্চর্যের হলেও সত্যি যে, কলেজের নিজস্ব একটি ওয়েবসাইট থাকার পরও বিভাগগুলোকে কোনো তথ্য/নোটিশ জানানোর কাজ করা হয় চিঠির মাধ্যমে।
এ ব্যাপারে রংপুর সরকারি কলেজের অধ্যক্ষ কানিজ উম্মে নাজমা নাসরীনের সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, ওয়েব সাইটের বাৎস্যরিক বিল পরিশোধ সংক্রান্ত সমস্যার কারণে গত দু-এক মাস ওয়েব সাইটে তথ্য হালনাগাদ করা সম্ভব হয়নি। তবে দ্রুত ওয়েবসাইটে প্রয়োজনীয় তথ্য হালনাগদ করা হবে। কলেজের বিভাগগুলো সম্পর্কে কোনো তথ্য হালনাগাদ না করার ব্যাপারে তিনি বলেন, আমাদের ওয়েবসাইটির ধারণক্ষমতা কম। যার কারণে চাইলেও আমরা বিস্তারিত তথ্য হালনাগাদ করতে পারি না। তবে ওয়েব সাইটের ধারণক্ষমতা বৃদ্ধিকরাসহ ওয়েবসাইটের বিভিন্ন দিক উন্নয়নে কাজ করা হচ্ছে। তিনি আরো বলেন, কলেজসহ প্রতিটি বিভাগের আলাদা আলাদা ফেসবুক পেজ রয়েছে। সেখানে নিয়মিত একাডেমিক ও অনুষ্ঠান পালন সংক্রান্ত তথ্যসহ প্রয়োজনীয় তথ্য আপলোড করা হয়।

Advertisement
Advertisement

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here