নাঙ্গলকোটের সেই হাসপাতাল চালু হচ্ছে নভেম্বরে

0
1211

জামাল উদ্দিন স্বপন :
কুমিল্লার নাঙ্গলকোট উপজেলার সেই গোহারুয়া হাসপাতাল পুনরায় চালু হচ্ছে। ৫ নভেম্বর চালু হবে হাসপাতালটির বহির্বিভাগ।
অন্যান্য সংস্কার কাজ শিগগিরই সম্পন্ন হবে। গতকাল স্বাস্থ্য অধিদফতরের মহাপরিচালক অধ্যাপক ডা. দীন মোহাম্মদ নুরুল হক হাসপাতালটি পরিদর্শন শেষে সাংবাদিকদের এসব কথা বলেন। সূত্র জানায়, নাঙ্গলকোট উপজেলার গোহারুয়ায় ২০০৬ সালের ১৭ অক্টোবর ৬ কোটি টাকা ব্যয়ে ২০ শয্যার গোহারুয়া হাসপাতাল উদ্বোধন করা হয়। উদ্বোধনের পর হাসপাতালের বহির্বিভাগে হাতেগোনা কয়েকদিন রোগী দেখা হয়। পরে তার কার্যক্রম বন্ধ হয়ে যায়। ডাক্তার, নার্স এবং নিরাপত্তা  প্রহরী না থাকায় হাসপাতাল আঙিনা গোচারণ ভূমিতে পরিণত হয়। লতাপাতায় ঢেকে যায় হাসপাতালের নয়টি ছোট-বড় ভবন। রাতের আঁধারে চোরের দল দরজা-জানালা খুলে নিয়ে যায়। হাসপাতালটি চালু হলে কুমিল্লার নাঙ্গলকোট, মনোহরগঞ্জ ও নোয়াখালীর সেনবাগ উপজেলার দুই লক্ষাধিক মানুষ চিকিৎসা সেবা পাবেন।
স্বাস্থ্য অধিদফতরের মহাপরিচালক গোহারুয়া হাসপাতাল পরিদর্শনের সময় উপস্থিত ছিলেন, নাঙ্গলকোট উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান আবু ইউছুপ ভূঁইয়া, স্বাস্থ্য অধিদফতর পরিচালক (হাসপাতাল) অধ্যাপক ডা. সামিউল ইসলাম সামী, পরিচালক (স্বাস্থ্য পরিচর্চা) ডা. আবদুল্লাহ সোহেল, সহ-পরিচালক (সমন্বয়) ডা. শেখ মো. হাসান ইমাম, কুমিল্লা জেলা সিভিল সার্জন ডা. মজিবুর রহমান, নাঙ্গলকোট উপজেলা ভারপ্রাপ্ত স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. আবদুল মালেক, ডা. আবদুল আলী, ডা. সুইটি, ডা. হাসান ইবনে আমিন, ডা. সীমা মজুমদার, জেলা যুবদলের সহ-সাধারণ সম্পাদক এনাম ভূঁইয়া, স্থানীয় ইউনিয়ন চেয়ারম্যান আলী আক্কাছ, জোড্ডা ইউনিয়ন পশ্চিম আওয়ামী লীগ যুগ্ম আহ্বায়ক আবদুল হক ভূঁইয়া, সহিদ আলম ভূঁইয়া, উপজেলা ছাত্রলীগ যুগ্ম আহ্বায়ক আবদুর রেজ্জাক সুমন, ছাত্রলীগ নেতা মমিন হোসেন মিয়াজী প্রমুখ।

Advertisement
Advertisement

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here