নীলাম্বরী খেলাঘর আসরের ৪৪ বছর পূর্তি উপলক্ষে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান, আলোচনা সভা ও কুইজ প্রতিযোগিতার পুরষ্কার বিতরণী অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত

0
1375

আজ ১২ই আগস্ট জামালখান এলাকার শিশু-কিশোরদের সংগঠন নীলাম্বরী খেলাঘর আসরের ৪৪ বছর পূর্তি উপলক্ষে জামালখান এলাকার বিভিন্ন স্কুলের শিক্ষার্থীদের নিয়ে স্কুল কুইজ প্রতিযোগিতার পুরষ্কার বিতরণ, সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে।
প্রথমেই তৃষা দাশ ও শুচিষ্মিতা চৌধুরীর সঞ্চালনায় জাতীয় সংগীতের মাধ্যমে অনুষ্ঠানের সাংস্কৃতিক পর্ব শুরু হয়।
আবু হাসনাত চৌধুরীর সভাপতিত্বে ও জনার্দন বণিকের সঞ্চালনায় প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন বিশিষ্ট কবি ও সাংবাদিক আবুল মোমেন, মুখ্য আলোচক হিসেবে বক্তব্য রাখেন খেলাঘর চট্টগ্রাম মহানগর কমিটির সভাপতি ড. গাজী সালেহ উদ্দীন। এছাড়া আরও বক্তব্য রাখেন খেলাঘর কেন্দ্রীয় কমিটির প্রেসিডিয়াম সদস্য প্রকৌশলী রথীন সেন, খেলাঘর কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য অধ্যাপিকা রোজী সেন, স্বাগত বক্তব্য রাখেন নীলাম্বরী খেলাঘর আসর এর আহ্বায়ক মনির আহমেদ ও যুগ্ম আহ্বায়ক শোভন দাশ শুভ।
এসময় বক্তারা নীলাম্বরী খেলাঘর আসরের ৪৪ বছরপূর্তিতে এই আসর সংশ্লিষ্ট সকল কর্মী সংগঠকদের অভিনন্দন ও আসরটির সফলতা কামনা করেন। ভবিাষ্যতে যাতে জামালখান এলাকায় এই আসরটির মাধ্যমে শিশু-কিশোরদের দেশপ্রেমিক, বিজ্ঞানমনষ্ক, মানবিক, অসাম্প্রদায়িক ও মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় উদ্বুদ্ধ হয় সেইদিকে বক্তারা বিশেষ দৃষ্টি আকর্ষণ করেন।
প্রধান অতিথির বক্তব্যে কবি ও সাংবাদিক আবুল মোমেন বলেন, এখনকার ছেলেমেয়েরা বিভিন্নভাবে স্কুল-কলেজ, কোচিং সেন্টার এমনকি পারিবারিক চাপেও বয়লারের মুরগীর মতো আচরণ করছে। যেখানে কিনা তাদের নিয়মিত খেলাধুলা, একাডেমিক পড়াশুনার বাইরেও পড়াশুনা, এলাকার বিভিন্ন সমস্যা সমাধানে এগিয়ে আসা সহ নানা ধরনের সামাজিক কর্মকান্ডে দেখা যেত আজ তা প্রায় বিলুপ্ত। এগুলোর বিপরীতে তারা আজ বিভিন্ন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে যেমন ফেসবুক, ইউটিউব ইত্যাদির প্রতি আসক্ত।
ড. গাজী সালাউদ্দীন তার বক্তব্যে বলেন, একটি অসাম্প্রদায়িক বিজ্ঞানমনষ্ক মানবিকবোধ সম্পন্ন প্রজন্ম গড়ে তোলাই আমাদের মূল লক্ষ্য।
এছাড়া প্রকৌশলী রথীন সেন তার বক্তব্যে বলেন, আজ থেকে প্রায় ৪৪ বছর আগে থেকে শুরু হয়ে আজ পর্যন্ত নীলাম্বরী খেলাঘর আসর এ এলাকায় শিশু-কিশোরদের বিভিন্নভাবে বিকশিত করে যাচ্ছে, ভবিষ্যতেও করবে।
আলোচনা সভার সভাপতির বক্তব্যে আবু হাসনাত চৌধুরী বলেন, শিশুদের ইচ্ছা কি সেই বিষয়গুলো আগে অভিভাবকদের লক্ষ্য করে সেই অনুসারে তাদের সন্তানদের অনুপ্রাণিত করা উচিত। এর পাশাপাশি আমরা তো থাকবই। এছাড়া অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন খেলাঘর চট্টগ্রাম মহানগরের সাধারন সম্পাদক এ এস এম জাহিদ হোসেন, সদস্য পার্থ প্রীতম নাহা, ইসরাত জাহান সুইটি প্রমুখ।
সবশেষে রবিশঙ্কর সেন নিশানের সঞ্চালনায় কুইজ প্রতিযোগিতা পুরষ্কার বিতরণী পর্ব শুরু হয়। ২ বিভাগে সর্বমোট ১০ জনকে পুর®কৃত করা হয়। এছাড়া সকলকেই অনুপ্রাণিত করতে বিশেষ পুরষ্কার প্রদান করা হয়। অজস্র কড়তালির মাধ্যমে অনুষ্ঠানের সমাপ্তি ঘটে।

Advertisement
Advertisement

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here