ভারতীয় পাহাড়ী ঢলে নুতন করে প্লাবিত রৌমারী- রাজিবপুর

0
415

মাজহারুল ইসলাম,রৌমারী (কুড়ি[গ্রাম) প্রতিনিধিঃ
গত কয়েকদিনের টানা বর্ষন ও ভারতীয় পাহাড়ী ঢলে প্লাবিত হয়েছে রৌমারী ও রাজিবপুর উপজেলার ৯টি ইউনিয়ন। যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়েছে রাজিবপুরে ৮২টি ও রৌমারীতে ১৯৮টি গ্রামের ২লাখ মানুষ। রাজিবপুর উপজেলার ৮২টি গ্রাম ও উপজেলা শহরটি তলিয়ে গেছে বানের পানিতে। রৌমারী ও রাজিবপুর উপজেলা দুটি ব্র্হ্মপুত্র নদের পুর্বপারে পানি-সম্পদের বেড়ী-বাধ দ্বাড়া রক্ষিত। কিন্ত কদিনের টানা বর্ষনের ফলে ভারতীয় পাহাড়ী ঢলের প্রচন্ড চাপে রৌমারী’র ধনারচর বেড়ীবাঁধ ও রাজিবপুরে মিয়াপাড়া স্লুইজ গেট বেড়ীবাধ ভেঙ্গে দুটি উপজেলার ২৮০টি গ্রাম প্লাবিত হয়। এতে ক্ষতিগ্রস্থ হয় হাজার-হাজার মাছের পুকুর, রোপা আমন, বীজতলা, কাচা-পাকা গ্রামীণ সড়ক। ঘরে বাইরে কানায়-কানায় পানি থৈ-থৈ করছে। বাড়ি-ঘর ছেড়ে অন্য কোথাও আশ্রয়ের ব্যাবস্থা নেই। পারছেনা রান্না করতে। গরু-ছাগল হাস-মুরগী নিয়ে অসহায়ত্ব মানবেতর জীবন যাপন করছে। পানি বেড়েই চলছে। মধ্যবিত্ত মানুষ পাচ্ছেনা সরকারী কোন সহায়তা। রৌমারী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ভার) মোঃ ফাউজুল কবির জানান,এপর্যন্ত রৌমারীতে বর্ন্যার্তদের মাঝে ৬০ মেট্রিক টন ও রাজিবপুরে ৩৭ মেট্রিক টন চাল দেওয়া হয়েছে। টিউবওয়েল পানিতে তলিয়ে যাওয়ায় বানভাসিরা বিশুদ্ধ পানি সঙ্কটে পড়েছে। চাল বিতরনের সঠিক পরিকল্পনা না থাকায় বানভাসিরা তেমন উপকার পাচ্ছেনা। এলাকায় মানুষ বন্যার পানিতে আধমরা হলেও ২৮ কুড়িগ্রাম ৪-সংসদ সদস্য মোঃ রুহুল আমিন ঢাকায় অবস্থান কনছেন।

Advertisement
Advertisement

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here