মিনিকেট চালে খাদ্যমান নষ্ট হয়ে যায়

0
439

বাংলাদেশ ইনস্টিটিউট অব ডেভেলপমেন্ট স্টাডিজের (বিআইডিএস) গবেষণায় প্রমাণিত হয়েছে, মিনিকেট চাল আসলে সাধারণ মোটা চাল বিশেষ পলিশিং মেশিনে কেটে চিকন ও চকচকে করে বেশি দামে বিক্রি করা হয়। এই চালে স্বাভাবিক খাদ্যমান নষ্ট হয়ে যায়। জাতীয় সংসদের পরিকল্পনা মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত স্থায়ী কমিটির বৈঠকে বিআইডিএসের পক্ষ থেকে এ তথ্য জানানো হয়। এর পরিপ্রেক্ষিতে গবেষণালব্ধ ফলাফলটি বিভিন্ন মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমে ব্যাপক প্রচার করে জনসচেতনতা সৃষ্টি করার পরামর্শ দেয় সংসদীয় কমিটি।
এ ছাড়া দেশের ব্যাংক-ব্যবস্থা থেকে জালিয়াতির মাধ্যমে অর্থ লুটপাটের ঘটনা কীভাবে রোধ করা যায় এবং শেয়ারবাজার যাতে স্থিতিশীল থাকে, সে সম্পর্কে আরও কার্যকর গবেষণা পরিচালনা করার সুপারিশ করে কমিটি।
বৈঠকে জানানো হয়, ২০০৮ সাল থেকে ২০১৭ সাল পর্যন্ত বিআইডিএস মোট ১০৭টি গবেষণা কার্যক্রম পরিচালনা করে। এর মধ্যে ৪৪ দশমিক ১৭ শতাংশ বাংলাদেশ সরকারের অর্থায়নে, ৫২ দশমিক ৩৬ শতাংশ বেসরকারি অর্থায়নে এবং ৩ দশমিক ৪৭ শতাংশ বিআইডিএসের নিজস্ব অর্থায়নে করা হয়েছে।
কমিটির সভাপতি আবুল কালাম আজাদের সভাপতিত্বে কমিটির সদস্য পরিকল্পনামন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল, রফিকুর ইসলাম, মুহিবুর রহমান মানিক, মো. তাজুল ইসলাম ও কমিটির বিশেষ আমন্ত্রণে পরিকল্পনা প্রতিমন্ত্রী এম এ মান্নান বৈঠকে অংশ নেন।

Advertisement
Advertisement

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here