রৌমারীতে এখনও সুবিধাবঞ্চিত হাজারও অসহায় নারী পুরুষ ৮০ বছরেও আমিনার টাকা ছাড়া মিলছেনা বয়স্কভাতা

0
439

মাজহারুল ইসলাম,
কুড়িগ্রাম জেলাধীন রৌমারী উপজেলার সদর ইউনিয়নের কান্দাপাড়া গ্রামে। অসহায় ৮০ বছর বয়সের বিধবা নারী আমিনা খাতুনের বয়স্ক ভাতা এখন ভাগ্যে জোটেনি।  আমিনা খাতুনের অভিযোগ বাবা আমার পয়সাও নাই বিধবা ভাতার নামও নাই। এমন ভাবেই তিনি জানান যহনি নামের কথা কই তহনী টেহার কথা কয় মেম্বাররা। বাবা এহন আর সময় নাই সময় শেষ ওইয়া গেছে। যেইদিন আল্লায় নিয়া যাইবো হেইদিন মেম্বার চেয়ারম্যানরা বাইচা যাইবো। এমন ভাবেই তার ভাষাগুলো সে কাপতে কাপতে কাছে এসে বলছিলেন। আর সে যখন হাটাহাটি করে, পায়ে হেটে এবাড়ি ও বাড়ি পেটের দায় খুধানিবারনের জন্য। চলতে পারতেন তখন কারও না কারোর বাড়িতে গিয়ে একমুষ্ঠি খাবার খেয়েও সারাদিনটা কাটিয়ে নিতে পারতেন। এখন তো আর ওই সময়টা নেই সে বর্তমান একদম অচলবস্থায় অন্যের বাড়িতে ভাঙ্গা ঘরের এক কোনায় খেয়ে না খেয়ে সুয়ে থাকে বলে জানা গেছে দেখার কেউই নেই। আমিনা খাতুণ এর আইডি নং ৪৯১৭৯৭১৩৯৭৯৯৬, ও জন্ম তারিখে উল্লেখ্য ১৫ জুন ১৯৩৭ ইং সালের তার জন্ম হলেও বয়স্ক ভাতা বয়স আমিনা এখনও হয়নি। সরকার অসহায়দের জন্য দেন আর অসহায় নারী ও পুরুষদের রুজি রুজগারের সুযোগ না থাকায়। মেম্বর চেয়ারম্যানদের টাকা দিতে অক্ষম প্রকাশ করলেই। ওই অসহায় নারী পুরুষদের বাড়িরর আশপাশ দিয়ে হাটেন না জনপ্রতিনিধিরা। একারনে অসহায় নারী পুরুষদের ভাতা হয়না। ৮০ বছর বয়সের স্বামী হারা নারী আমিনার ভাতা কেন হয়নি এবিষয় রৌমারী সদর ইউনিয়নের কান্দাপাড়া ৬নং ওর্য়াডের মেম্বর তমিজ উদ্দিন এর কাছে জানতে চাইলে তিনি জানান আমার ওর্যাডে প্রায় ৭০/৮০ জন এরকম বয়স্ক নারী পুরুষ রয়েছে আর নাম পাইছি ২ টি কয়জনরে দিমু। রৌমারী উপজেলার সদর ইউনিয়নের ইউপি চেয়ারম্যান শহিদুল ইসলাম শালু জানায় বছরে ১২টি ভাতার নাম পাই আর আমার ইউনিয়নে প্রায় এরকম শত শত নারী পুরুষ রয়েছে ১২টি নাম মাত্র কোথায় চাহীদা মিটাবেন চেয়ারম্যান বয়স্ক ভাতার নাম বারানোর প্রয়োজন নইলে অসহায় নারী পুরুষদের চাহিদা থেকেই যাবে। রৌমারী উপজেলা সমাজসেবা কর্মকর্তা তার সঙ্গে যোগাযোগ করা সম্ভব হয়নি। উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা  ইউএনও ফাউজুল কবীর তার সঙ্গে ৮০ বছর বয়সের আমিনা খাতুনের ভাতা না হওয়ার বিষয় জানতে চাইলে তিনি জানান ওই বয়স্ক নারীর তথ্যটি আমার জানা নেই তার আইডি কার্ডটি অফিসে দেন আমি বষিয়টির ব্যবস্থা নিচ্ছি। অপরদিকে বয়স্ক তাভার সংখ্য রৌমারী উপজেলায় অনেক বেশি তাই নামের তালিকা বারানোর খুবই প্রয়োজন এবং বয়স্ক নারী পুরুষদের দাবী ওরা পায় আমরা পাইনা।

Advertisement
Advertisement

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here