রৌমারীতে গ্রামীণ সড়কের বেহাল দশা

0
474

রৌমারী (কুড়িগ্রাম)প্রতিনিধিঃ
কুড়িগ্রাম জেলার রৌমারী ও রাজিবপুর উপজেলায় দুদফা বন্যায় গ্রামীণ সড়ক গুলো বেহাল হয়ে পড়েছে। যারফলে মানুষ চরম ভোগান্তিতে পড়েছে। উপজেলার ১৯৮ বর্গ কিলোমিটার এলাকা জুড়ে একটি মাত্র ঢাকা গামী প্রধান ডিসি সড়ক ব্যাতিত পুরো এলাকা জুড়ে গ্রামীণ সড়ক গুলো বন্যার পানির তোড়ে ভেঙ্গে খান-খান হয়ে খানা খন্দের সৃষ্টি হয়েছে। পানির ¯্রােতে ভেঙ্গেগেছে শতাধিক বাঁশের সাঁকো। যারফলে পাড়া-গায়ের মানুষ সড়ক পথে যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়েছে।কৃষিপর্ন ও যানবাহন পারাপার করে আনতে পারছেনা হাট-বাজারে । জিনজিরাম, সোনাভরি নদ ও ছোটবড় অসংখ্য খাল- কুড়া ্এবং রাস্তা ভাঙ্গনের ফলে উপজেলার ৬টি ইউনিয়নের যথা চর-শৌলমারী, বন্দবেড়, দাঁতভাঙ্গা,শৌলমারী,রৌমারী ও যাদুরচরে, প্রায় ১০০টি গ্রামীণ কাঁচা সড়ক রয়েছে। সেখানে রয়েছে ঘুঘু-মারী বাঁশের সাঁকো,মিয়ারচর বাঁশের সাঁকো,কাজাইকাটা,গাছবাড়ী,কাউনিয়ারচর,উত্তর কাউনিয়ারচর,গয়টাপাড়া,তেকানী গ্রাম,বাঘের-হাট,খেতারচর,চেংটাপাড়া,চর-বোওয়ালমারী,চর-বাঘমারা,বন্দবেড়,চর-ইচাকুড়ি,কাশিয়াবাড়ী,বাওয়াইরগ্রাম,বড়াইবাড়ী,কান্দাপাড়া,হরিণ ধরা,লাঠিয়ালডাঙ্গাসহ প্রায় অর্ধশত বাঁশের সাঁকো রয়েছে। এসব সাঁকো দিয়ে গ্রাম গজ্ঞের হাজার হাজার মানুষ প্রতিনিয়ত অতিকষ্টে জীবনের ঝুকি নিয়ে দৈনন্দিন জীবনে প্রয়োজনের তাগিদে নানা উপায়ে পারাপার হয়ে তাদের চাহিদা মেটায়। এব্রাপারে দাঁতভাঙ্গার সফিয়ার রহমান,বন্দবেড়ের আব্দুল আজিজ,যাদুরচরের মোশারফ হোসেন লিটন বলেন, রৌমারতে গ্রামীণ সড়ক উন্নয়নে অনেক পিছিয়ে। দেশে ব্যাপক উন্নয়নের কথা বলা হলেও রৌমারীতে গ্রামীণ সড়ক উন্নয়নে কোন ছোওয়া লাগেনি। যারফলে গ্রামীণ জনপদ বিপন্ন প্রায়। তাই এঅঞ্চলের মানুষের প্রাণের দাবী গ্রামীণ সড়ক গুলো সংস্কার করে তৃণ-মূল মানুষের দূদর্শা লাঘব করা হউক

Advertisement
Advertisement

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here