সন্ত্রাস ও মাদক নির্মূলে ঢাকা জেলা ডিবি’র (উত্তর) প্রশংসনীয় কার্যক্রম

0
574

নোমানমাহমুদঃ রাজধানী ঢাকার পার্শ্ববর্তী উপজেলা সাভার উপজেলা। প্রায় ১৫ লক্ষ মানুষের ঘনবসতিপূর্ণ এই উপজেলায় রয়েছে নানান শ্রেণী-পেশার মানুষের বসবাস। একেতো শিল্পাঞ্চল তার উপরে জনবহুল হওয়ায় বরাবরই মাদক ব্যবসায়ী সহ বিভিন্ন অপরাধী চক্রের দ্বারা আক্রান্ত এই এলাকা। যার দরুন এলাকাটি হয়ে উঠেছিলো মাদক ও সন্ত্রাসের অভয়ারণ্য। কিন্তু গত কয়েকমাসে আশ্চর্যজনকভাবে বদলে গেছে সাভার উপজেলাসহ তার আশেপাশের এলাকার সেই চিরচেনা চিত্রটি। আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি সহ বিভিন্ন ক্ষেত্রে এসেছে আমূল পরিবর্তন। আর এই অসাধারণ পরিবর্তনের পেছনে বিশেষ একটি ভূমিকায় রয়েছে ঢাকা জেলা পুলিশের গোয়েন্দা শাখার উত্তর ইউনিট। গত কিছুদিন পুর্বেও যেখানে হাতের নাগালে মিলতো বিভিন্ন প্রকার মাদকের দেখা, ঢাকা জেলা ডিবি’র  (উত্তর)  মাদক ও সন্ত্রাস বিরোধী অভিযানে সেই এলাকাই হয়ে গিয়েছে মাদক শূন্য। একের পর এক বিপুল পরিমান মাদক উদ্ধার ও একে একে মাদক ব্যবসায়ীদের গ্রেফতারের ঘটনায় ধীরে ধীরে পিছু হটতে শুরু করেছে মাদক ব্যবসায়ীসহ বিভিন্ন অপরাধী চক্রগুলো। গত জুলাই ২০১৭ থেকে সেপ্টেম্বর ২০১৭ এই ৩ মাসে ৩৫ হাজার ৪৬৫ পিস ইয়াবা, ৯ হাজার ৭৬০ পুরিয়া হেরোইন, ২৬ কেজি গাজা,  ৫৫৭ বোতল ফেন্সিডিলসহ ১ হাজার ৬ শত লিটার বাংলা মদ ঢাকা জেলা ডিবি’র (উত্তর) মাদক বিরোধী অভিযানে উদ্ধার হয় যা ইতিপূর্বের সকল রেকর্ডকে ছাড়িয়ে গেছে। শুধু মাদকই নয়, এই এলাকাকে কেন্দ্র করে গড়ে ওঠা বিভিন্ন সন্ত্রাসী ও অপরাধী চক্রের বিরুদ্ধে তাদের এই চলমান অভিযানে শুধুমাত্র গত ৩ মাসেই বিভিন্ন অপরাধী ধরা পড়াসহ অপরাধী চক্রের কাছ থেকে ২টি বিদেশী পিস্তল, ২টি দেশীয় ওয়ান শুটার গান, ৩টি ম্যগজিন, ১১ রাউন্ড গুলি, চাইনিজ কুড়াল, চাপাতি, রামদা, কয়েকটি খেলনা পিস্তল, ওয়াকিটকি,  হ্যান্ডকাফসহ ২০ হাজার টাকার জাল নোট উদ্ধার করা হয়।

Advertisement

ঢাকা জেলা ডিবি’র (উত্তর)  এই ইউনিটের সদস্যদের হাত থেকে বাচতে মাদক ও অস্ত্র সংরক্ষণ ও পরিবহণে অপরাধীদের বিভিন্ন প্রকার কলাকৌশল অবলম্বন করার পরেও তাদের শেষ রক্ষা হচ্ছেনা। অপরাধীদের সকল কূটকৌশলকে ব্যার্থ করে পুলিশের গোয়েন্দা শাখার এই ইউনিট স্বদর্পে এগিয়ে চলেছে। এলাকার সার্বিক আইনশৃঙ্খলা রক্ষাসহ মাদক নির্মূলে তাদের এই সফলতায় সাধারন মানুষের মাঝেও ফিরে এসেছে স্বস্তির নিঃশ্বাস।

তাদের এসকল কার্যক্রম সম্পর্কে জানতে চাইলে ঢাকা জেলা ডিবি’র (উত্তর) ওসি এ,এফ,এম সায়েদ বলেন,  “ ঢাকা জেলা পুলিশ সুপার শাহ মিজান শাফিউর রহমান স্যারের নির্দেশনায় মাদক ও সন্ত্রাসের বিরুদ্ধে আমরা আমাদের অভিযান পরিচালনা করছি যা আগামীতেও অব্যাহত থাকবে। অপরাধীরা যত কূটকৌশলই অবলম্বন করুক না কেন তাদের সকল পরিকল্পনাকে ব্যার্থ করে আমাদের কার্যক্রম এগিয়ে যাবে। এলাকায় সন্ত্রাস ও মাদকের কোন স্থান নেই।“

মাদক ও সন্ত্রাসের বিরুদ্ধে ঢাকা জেলা পুলিশের এই কার্যক্রম অত্যন্ত প্রশংসনীয় আর এর ধারাবাহিকতা আগামীতেও অব্যাহত থাকবে সকলের এমনটিই প্রত্যাশা।

Advertisement

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here