সালমানের খুনিদের বিচার দাবিতে বিক্ষোভ সমাবেশ

0
453

নায়ক সালমান শাহের খুনিদের গ্রেফতার ও বিচার দাবিতে শনিবার বিক্ষোভ সমাবেশ ও মিছিল অনুষ্ঠিত হবে। চট্টগ্রাম নগরীর মুসলিম ইনস্টিটিউট মিলনায়তনে বিকালে এ সমাবেশের আয়োজন করা হয়েছে। শুক্রবার বিকালে চট্টগ্রাম প্রেসক্লাবে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে সালমান শাহের মা নীলা চৌধুরী এ ঘোষণা দেন। সালমান শাহ ঐক্যজোট কর্তৃক আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে নীলা চৌধুরী আরও বলেন, সন্তান হত্যার বিচারের দাবিতে ২২ বছর ধরে লড়াই করে আসছি। এখন প্রমাণিত হচ্ছে সালমান শাহকে হত্যা করা হয়েছে। যা ভিডিওর মাধ্যমে সামিরার মামি রুবি সুলতানা বার বার বলে যাচ্ছেন। তিনি আরও বলেন, রুবির স্বামী, ভাই, পুত্রসহ সবাই এ হত্যায় জড়িত ছিল। যার ফলশ্রুতিতে রুবির ভাই রুমীকে গুম করে হত্যা করা হয়েছে এবং রুবির সন্তান বিকিকে দিয়ে হত্যার আলামত সামিরা পাশের বিল্ডিংয়ের ছাদে ফেলে দিয়ে নষ্ট করেছে। রুবি বার বার বলছে, নীলাভাবি আমাকে যদি মেরেও ফেলা হয়, তারপরও আপনি মামলা বন্ধ করবেন না, সালমান শাহ আত্মহত্যা করেনি, তাকে হত্যা করা হয়েছে। নীলা চৌধুরী বলেন, এর আগেও রিজভী নামে একজন ১৬৪ ধারায় আদালতে জবানবন্দীতে বলেছিলেন, রুবির মতx সেও খুনের সঙ্গে জড়িত ছিল। কিভাবে সালমান শাহকে নির্মমভাবে হত্যা করা হয়েছে সে বিষয়ে ম্যাজিস্ট্রেটের কাছে জবানবন্দি দিয়েছেন। নীলা চৌধুরী আরও বলেন, বিগত দিনে ডিবি, সিআইডি, জুডিশিয়াল ইনকোয়ারি করে আত্মহত্যার প্রতিবেদন দেয়ায় প্রমাণ করে মামলাটি শেষ করার চেষ্টা করা হয়েছিল। যা আমি কোনো দিন মেনে নিই নাই। যার ফলশ্রুতিতে আজও মামলাটি চলছে। চট্টগ্রামের স্মৃতিচারণ করে সালমানের মা নীলা চৌধুরী বলেন, দুমাস বয়সে সালমানকে নিয়ে চট্টগ্রামে এসেছিলাম। তিন বছর এখানে ছিলাম। আমার স্বামী কমল উদ্দিন আহমেদ চৌধুরী ছিলেন ম্যাজিস্ট্রেট। আমরা লালখান বাজারের বাসায় থাকতাম। এখানে সালমান শাহ বিয়ে করেছে। এখানে বহুবার তাকে আঘাত করা হয়েছে। তিনি বলেন, চিত্র নায়ক সালমান শাহ আত্মহত্যা করেনি, তাকে হত্যা করা হয়েছিল। আত্মহত্যা করার কথা কেউ বিশ্বাসও করেনি, শুধু স্ত্রী সামিরাই আত্মহত্যার প্রচার চালিয়েছিল। সংবাদ সম্মেলনে চট্টগ্রাম সালমান শাহ ঐক্যজোটের সভাপতি তানভির সায়েম, সেক্রেটারি সালমান হায়দার, প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক আরিফ জয় প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

Advertisement
Advertisement

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here