৫৭ ধারা বাতিলের চেয়ে অপপ্রয়োগ বন্ধ জরুরি : সেতুমন্ত্রী

0
1294

সময় এলেই সেনা নিয়োগের বিষয়ে বলা যাবে, তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি আইনের ৫৭ ধারা বাতিলের চেয়ে অপপ্রয়োগ বন্ধ করা জরুরি বলে মন্তব্য করেছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের। খুলনার সাংবাদিক আবদুল লতিফের বিরুদ্ধে ৫৭ ধারায় মামলা ও গ্রেফতার প্রসঙ্গে ওবায়দুল কাদের বলেন, তুচ্ছ কিছু ঘটল আর সাংবাদিকদের বিরুদ্ধে মামলা দিয়ে গ্রেফতার করা হল, এটি ৫৭ ধারার অপপ্রয়োগ। এ ধারা বাতিলের চেয়ে এর অপপ্রয়োগ বন্ধ করা দরকার। আমি মনে করি, ৫৭ ধারার অপপ্রয়োগ ঠেকাতে তথ্যমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ করা উচিত।
বুধবার রাজধানীর আগারগাঁওয়ে মেট্রো রেলের নির্মাণ কাজের উদ্বোধন শেষে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে এ কথা বলেন তিনি। সেতুমন্ত্রী বলেন, সাইবার ক্রাইম নিয়ন্ত্রণের জন্য ৫৭ ধারা করা হয়েছিল। কিন্তু তুচ্ছ কারণে এর অপপ্রয়োগ করা হচ্ছে কিনা, সেটি খতিয়ে দেখতে হবে। খুলনায় যে ঘটনা ঘটেছে, তা দুঃখজনক। এ ধরনের বিষয়ে যদি মামলা করতে হয়, তাহলে তা ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের সঙ্গে আলোচনার মাধ্যমে করা উচিত। সামান্য কারণে হুট করে একটা মামলা ঠুকে দেয়া, এটা সঠিক নয়।
নির্বাচন কমিশনের সঙ্গে সুশীল সমাজের প্রতিনিধিদের বৈঠকে নির্বাচনে সেনা মোতায়েনের যে সুপারিশ এসেছে, সে বিষয়ে এক প্রশ্নের জবাবে কাদের বলেন, সংবিধানেই লেখা আছে সেনাবাহিনীকে কোথায়, কখন, কে ও কীভাবে ব্যবহার করা যাবে। আমাদের আগের নির্বাচনগুলোয় তাদের ভূমিকা ছিল। এবার সেনাবাহিনীর ভূমিকা নিয়ে আলাদাভাবে ভাবার কোনো কারণ নেই। সেনাবাহিনী ডেকে এনে অহেতুক বিতর্কের প্রয়োজন নেই। এ মুহূর্তে এ দাবি অবান্তর ও অযৌক্তিক। নির্বাচনে বিএনপির সেনা মোতায়েন চাওয়া প্রসঙ্গে তিনি বলেন, বিএনপি সংলাপে এসে তাদের প্রস্তাব উপস্থাপন করুক। আওয়ামী লীগও করবে। সময়ই বলে দেবে সরকারের সঙ্গে আলোচনা করে নির্বাচন কমিশন কীভাবে সেনাবাহিনী নিয়োগ করবে।

Advertisement

 

Advertisement

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here