রাজীবপুরে গার্মেন্টকর্মীকে ‘গণধর্ষণের’ পর হত্যা লাশ মর্গে,থানায় মামলা

0
1091

মাজহারুল ইসলাম,
কুড়িগ্রামের রাজিবপুরে সাবিনা ইয়াসমিন (৩০) নামের এক গার্মেন্টকর্মীকে হত্যা করা হয়েছে। গতকাল বুধবার দুপুরে জেলার ব্রহ্মপুত্র নদের নয়াচর পশ্চিম চর নামক স্থান থেকে ঢুষমারা থানা পুলিশ তাঁর লাশ উদ্ধার করেছে।

 

পুলিশ বলছে, মঙ্গলবার রাতে তাঁকে গণধর্ষণের পর হত্যা করা হয় বলে প্রায় নিশ্চিত করা হয়েছে।
নিহত গার্মেন্টকর্মী সাবিনা ইয়াসমিন রাজিবপুর উপজেলার সন্ন্যাসীকান্দি চরের দিনমজুর মোসলেম উদ্দিনের মেয়ে। তিনি ঢাকায় একটি গার্মেন্ট কারখানায় চাকুরি করতেন। তবে ঢাকা থেকে এলাকায় আসার বিষয়টি তাঁর পরিবার জানত না।
মোসলেম উদ্দিন বলেন, ‘আমার মেয়ের বিয়ে হয়েছিল দেয়ানগঞ্জ উপজেলার সানন্দবাড়ি এলাকার মধ্যপাড়া গ্রামে। বিয়ের কিছুদিন পর যৌতুকলোভী স্বামী বাদশা মূল আমার মেয়েকে তাঁর বাড়ি থেকে বের করে দেয়। এরপর সংসারে চরম অভাব-অনটনের কারণে সাবিনা ঢাকায় একটি গার্মেন্ট ফ্যাক্টরিতে চাকরি শুর করেন। কয়েক দিন আগে মেয়ে ফোন করে বাড়ি আসার কথা বলেছিল। এরপর লাশ পেলাম।’
ধষমারী থানার অফিচার ইনর্চাজ মাসুধ পার্ভেজ জানান, সাবিনা ইয়াসমিন এর লাশ উদ্ধার করে কুড়িগ্রাম মর্গে প্রেরন করা হয়েছে। এবং সাবিনইায়ান এর বত্যা কান্ডে সাবিনার বাবা বাদী হয়ে একটি অগ্যাত নামা মামলা দায়ের করেছে। যার মামলা নং (১) অপরদিকে সাবিনায়াসমিনকে ধর্ষণ করার পর হত্যা করেছে কি না এর সঠিক কোনো তথ্য আমরা এখন বলতে পারছি না তবে চেষ্টা চলছে। তাঁর পরিবারের লোকজন মনে করছে, বাড়ি আসার পথে তাকে তুলে নিয়ে গিয়ে ধর্ষণ করার পর হত্যা করা হয়েছে। যে চরে লাশ পাওয়া গেছে সেই এলাকার মোহনগঞ্জ ইউপি চেয়ারম্যান আনোয়ার হোসেন জানান, এখন পর্যন্ত হত্যাকারীদের শনাক্ত করা যায়নি।

Print Friendly, PDF & Email

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here

eight − seven =