সারাক্ষণ পড় পড় করলে ছোটদের ভালো লাগে নাঃ চেয়ারম্যান সিরাজী

0
73

মোঃ শফিকুল ইসলাম পড়াশোনার পাশাপাশি কোমলমতি শিক্ষার্থীদের খেলাধুলায় উৎসাহিত করার জন্য সংশ্লিষ্টদের নির্দেশ দিয়েছেন সিরাজগঞ্জের কাজিপুর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামলীগের সাধারণ সম্পাদক খলিলুর রহমান সিরাজী। তিনি বলেছেন, সারাক্ষণ শুধু পড় পড় করলে ছোট ছেলেমেয়েদের ভালো লাগে না। খেলাধুলার মধ্য দিয়ে তাদের পড়ালেখা শেখাতে হবে। তবেই সেটা ফলপ্রসূ হবে। ররিবার কাজিপুর উপজেলা পরিষদ মাঠে আন্তঃপ্রাথমিক বিদ্যালয় ক্রীড়া ও সাংস্কৃতিক প্রতিযোগিতা উপজেলা শিক্ষা অফিস আয়োজিত এক অনুষ্ঠানের তিনি এসব কথা বলেন।

প্রধান অতিথির বক্তব্য খলিলুর রহমান সিরাজী বলেন, বর্তমান যুগে পরিবর্তিত বিশ্ব পরিস্থিতির সঙ্গে তাল মিলিয়ে চলার লক্ষ্যে নিজেদের প্রস্তÍুত করার জন্য শিক্ষার্থীদের আধুনিক প্রযুক্তিনির্ভর শিক্ষা দেয়ার ওপর গুরুত্বারোপ করেন।

আমরা শিক্ষার্থীদের আধুনিক প্রযুক্তিনির্ভর শিক্ষায় শিক্ষিত করে তুলতে চাই, যাতে তারা পরিবর্তিত বিশ্বের সঙ্গে তাল মেলাতে পারে। এ কথা মাথায় রেখেই তার আ’লীগ সরকার শিক্ষাব্যবস্থার সার্বিক মানোন্নয়নের চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে। আমরা শিক্ষাকে আরও আধুনিক, উন্নত এবং বিজ্ঞানসম্মত করতে চাই। ভালো ফলের জন্য শিক্ষার্থীদের পাঠে মনোনিবেশ করার আহ্বান জানিয়ে বলেন, ভালো ফল করতে হলে আমাদের শিশুদের আরও মনোযোগী হতে হবে।

ভবিষ্যতে যেন ফলাফল আরও ভালো হয়, সে জন্য মন দিয়ে লেখাপড়া করতে হবে।খলিলুর রহমান সিরাজী আরো বলেন, তার সরকার বিনা মূল্যে শিক্ষার্থীদের বই দেয়াসহ বৃত্তি প্রদান করছে। গরিব মা-বাবার ওপর যেন চাপ না পড়ে, সে জন্য আমরা বছরের শুরুতেই বই দিচ্ছি। কোনো শিক্ষার্থী যেন ঝরে না পড়ে, এ জন্য সরকারের পক্ষ থেকে সাহায্য করা হচ্ছে।

জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান শিক্ষাকে অত্যন্ত গুরুত্ব দিয়েছেন উল্লেখ করে বলেন, সংবিধানে শিক্ষার কথা বলা আছে গুরুত্বের সঙ্গে। বঙ্গবন্ধু আমাদের একটা স্বাধীন দেশ দিয়ে গেছেন। এই দেশটাকে আমরা আরও উন্নত করতে চাই। উন্নত ও সমৃদ্ধিশালী দেশ গড়তে হলে শিক্ষার কোনো বিকল্প নেই।বিশেষ অতিথির ইউএনও জাহিদ হাসান সিদ্দিকী বলেন, খেলাধুলার মাধ্যমে ডিজিটাল পদ্ধতিতে তাদের লেখাপড়ার ব্যবস্থা করবেন।

সরকারের মাল্টিমিডিয়া ক্লাসরুম তৈরির প্রসঙ্গ উল্লেখ করে প্রধানমন্ত্রী এসব সুযোগকে কাজে লাগিয়ে নতুন প্রযুক্তিনির্ভর শিক্ষায় শিক্ষার্থীদের শিক্ষিত করে তোলাতেও সংশ্লিষ্টদের প্রতি আহ্বান জানান। স্বাধীনতা লাভের পর বঙ্গবন্ধু সরকার শিক্ষাকে অগ্রাধিকার প্রদান করেছিল।

এই প্রয়াসের অংশ হিসেবে বঙ্গবন্ধু প্রাথমিক শিক্ষাকে বাধ্যতামূলক করেন। এ ছাড়া প্রাথমিক শিক্ষা বিনা মূল্যে প্রদান করার পাশাপাশি ৩৬ হাজার প্রাথমিক স্কুল জাতীয়করণ করা হয়। এসময় কাজিপুর উপজেলা শিক্ষা অফিসার আমজাদ হোসেনের সভাপতিত্বে প্রধান অতিথির চেয়ারম্যান খলিলুর রহমান সিরাজী, বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন সহকারী শিক্ষা অফিসার উত্তম মজুমদার, আবু জুবায়ের, শিক্ষক আব্দুল খালেক, আল আমিন, শহিদুল ইসলাম, আব্দুল মুকিত তালুকদার, আনোয়ার হোসেন, শাহীনুর ইসলাম প্রমুখ। 

Print Friendly, PDF & Email

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here

5 × two =