কক্সবাজার এলএ শাখার কমিশন বানিজ্য ও দুর্নীতিবাজদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিন

0
195

সংবাদ বিজ্ঞপ্তি : কক্সবাজার ভূমি অধিগ্রহণ শাখায় কোটি কোটি টাকার ঘুষ দুর্নীতি ও সিন্ডিকেটের কমিশন বানিজ্য, বিচার বর্হিভূত হত্যাকান্ডের সুষ্ঠু তদন্ত ও বিচার, সকল ভূমি অফিস, পুলিশ ও ট্রাফিক বিভাগে ব্যাপক মাসোহারা বানিজ্যসহ সকল বিভাগের ঘুষ বানিজ্য বন্ধ করণ, কক্সবাজার-মহেশখালীতে নতুন সেতু নির্মাণ, কক্সবাজারের সড়ক উন্নয়ন এবং জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের স্বহস্তে সৃজিত সমুদ্র সৈকতের ঝাউ বৃথি ও কক্সবাজার শহরকে রক্ষার জন্য আধুনিক প্রযুক্তি নির্ভর শহর রক্ষাবাঁধ নির্মাণ করার দাবীতে জাসদের মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়েছে।


বৃহস্পতিবার (২৪ সেপ্টেম্বর) সকাল ১১টায় জেলা প্রশাসক কার্যালয় চত্বরে জেলা জাসদ সভাপতি নইমুল হক চৌধুরী টুটুল এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত মানববন্ধন নেতৃবৃন্দরা বলেছেন- মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দেশ পরিচালনা করতে গিয়ে দেশের সর্ব দক্ষিণ পূর্বাঞ্চলীয় অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ ও প্রকৃতিক সম্পদের প্রাচূর্য্যে ভরপুর কক্সবাজার জেলাকে দেশের উন্নয়নের রোল মডেল হিসেবে গড়ে তোলার বহুমুখী উদ্যোগ গ্রহণ করেছে।


বর্তমান গণতান্ত্রিক সরকারে দক্ষ ও দূরদৃষ্টি সম্পন্ন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্ব ও নির্দেশনায় কক্সবাজার জেলায় মোট ২০টি মেগা উন্নয়ন প্রকল্প সহ আরো অনেক ছোট বড় উন্নয়ন প্রকল্প গ্রহন করেছন। প্রায় ৪ লাখাধিক কোটি টাকা ব্যয় সাপেক্ষে এই সব উন্নয়ন প্রকল্পের কাজ দ্রæত গতিতে এগিয়ে যাচ্ছে। কোন কোন প্রকল্পের দৃশ্যমান অগ্রগতি দেখে এতদাঞ্চলের মানুষ আজ আনন্দিত, উৎফুল্ল ও গর্বিত।


কিন্তু অত্যন্ত দুঃখ ভারাক্রান্ত হৃদয়ে প্রধানমন্ত্রীর সমীপে আমরা জানাতে বাধ্য হচ্ছি যে, এ জেলায় যথাযথ ন্যায় বিচারের অনুপস্থিতি, সর্বত্র সুশাসনের অভাব, পুলিশ বিভাগসহ সরকারী বিভিন্ন দপ্তর/বিভাগে লাগামহীন অনিয়ম-দূর্নীতি ও সরকারী বিশাল অংকের অর্থের লুটপাট, এলএ শাখার কতিপয় সরকারী কর্মকর্তা, রাজনৈতিক, সাংবাদিক ও শক্তিশালী দালাল সিন্ডিকেটের সীমাহীন দূর্নীতির কারণে প্রধানমন্ত্রীর বিশাল উন্নয়নযজ্ঞ সাধারণ মানুষের মাঝে নানা প্রশ্নের উদ্রেক ঘটাচ্ছে। উন্নয়নের চিত্র ¤øান হচ্ছে।


এমনতর উদ্ভুত প্রেক্ষাপটে প্রধানমন্ত্রীর বরবরে আমাদের আহবান ও দাবী সমূহ (১) কক্সবাজার জেলা প্রশাসক কার্যালয়ের ভূমি অধিগ্রহণ শাখার ব্যাপক অনিয়ম, দূর্নীতি, ঘুষ বানিজ্য ও সরকারি অর্থ লুটপাটে জড়িতদের বিষয়ে যথাযথ, সুষ্ঠু, নিরপেক্ষ ও প্রভাবমুক্ত উচ্চ পর্যায়ের সঠিক তদন্তের মাধ্যমে দৃষ্টান্তমূলক কঠোর শাস্তির ব্যবস্থা নিশ্চিত করতে হবে। (২) বীর মুক্তিযোদ্ধার কৃতি সন্তান সেনাবাহিনীর অবসর প্রাপ্ত মেজর সিনহ্া মোঃ রাশেদ খান হত্যাকান্ডসহ মাদক নির্মূলের নামে ইতোপূর্বে সংঘটিত সকল বিচার বর্হিভূত হত্যাকান্ডের সুষ্ঠু বিচার সুনিশ্চিত করার লক্ষে একটি বিচার বিভাগীয় তদন্ত কমিটি গঠন করতে হবে এবং দায়ীদের শাস্তি নিশ্চিত করতে হবে। (৩) বিশ্বের দীর্ঘতম বালুকাময় সমুদ্র সৈকত ও বঙ্গবন্ধুর নিজ হাতে স্বযতেœ সৃজিত ঝাউ বাগান ও শহর রক্ষার জন্য উন্নত বিশ্বের প্রযুক্তি ব্যবহার করে একটি আধুনিক শহর রক্ষাবাঁধ নির্মাণের দাবী জানাচ্ছি। (৪) দেশের পর্যটন রাজধানী খ্যাত কক্সবাজার জেলা শহরের প্রধান সড়ক সহ সকল সড়ক উপসড়কের চলমান নির্মাণ কাজ সমূহ এবং কক্সবাজার মহেশখালী নৌপথে যাতায়াত নির্বিঘœ ও ঝুঁকিমুক্ত করার লক্ষ্যে দুই প্রান্তে আধুনিক ও স্থায়ীত্বশীল জেটি সংস্কার করতে হবে এবং এর পাশাপাশি কক্সবাজার-মহেশখালী পারাপারের জন্য একটি আধুনিক সেতু নির্মাণ প্রকল্প গ্রহনের জন্য কক্সবাজারের ২৭লক্ষ জেলাবাসীর পক্ষ থেকে আকুল আবেদন জানাচ্ছি এবং ঘাট সমূহে যাত্রী পারাপারের ক্ষেত্রে হয়রানী ও মাত্রাতিরিক্ত টোল আদায় বন্ধ করতে হবে। (৫) বাংলাদেশে আশ্রিত সকল রোহিঙ্গা নাগরিকদের দ্রæত সময়ে নিজ দেশ মিয়ানমারে প্রত্যাবাসনের লক্ষ্যে দেশের সকল পর্যায়ের নেতৃস্থানীয় রাজনৈতিক, শিক্ষাবিদ, বুদ্ধিজীবি, বরেণ্যব্যক্তিদের সমন্বয়ে বিশেষ কমিটি গঠন করে বিশ্ব পরিমন্ডলে অব্যাহত কূটনৈতিক তৎপরতা চালাতে হবে।

(৬) কক্সবাজার সদর ভূমি অফিস সহ অন্যান্য সকল বিভাগের ঘুষ-দূর্নীতি বন্ধ করণের লক্ষ্যে চিহ্নিত দালাল সিন্ডিকেটের বিরুদ্ধে কঠোরতম ব্যবস্থা গ্রহণ করতে হবে। (৭) কক্সবাজারের পুলিশ বিভাগের ঘুষ বানিজ্য ও জেলা ট্রাফিক বিভাগের নিরব পরিবহন চাঁদাবাজীর স্থায়ী অবসান করতে হবে। (৮) ভূমি অধিগ্রহণের কারণে প্রকৃত ক্ষতিগ্রস্থ ভূমি মালিকদেরকে ৭(সাত) ধারার নোটিশ জারী করার পরে ওয়ানস্টপ সার্ভিসের মাধ্যমে দ্রæততার সাথে তাদের ক্ষতিপূরণের চেক হস্তান্তর করতে হবে।


মানববন্ধন কর্মসূচী শেষে কক্সবাজার জেলা প্রশাসকের মাধ্যমে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী বরাবরে ওই ৮দফার ভিত্তিতে স্মারকলিপি প্রদান করা হয়।
মানববন্ধনে অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন- জেলা জাসদ সাধারণ সম্পাদক এডভোকেট আবুল কালাম আজাদ, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মোঃ হোসাইন মাসু, সাংগঠনিক সম্পাদক এডভোকেট রফিক উদ্দিন চৌধুরী, শহর জাসদ সাধারণ সম্পাদক নুর আহমদ, জেলা জাসদ প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক পরিতোষ বড়–য়া, সহ-সম্পাদক এ.কে.এম মাহাবুল ইসলাম, জাতীয় যুবজোট সভাপতি অজিত কুমার দাশ হিমু, মহিলা বিষয়ক সম্পাদক রেজিয়া বেগম, শ্রমিক জোট সাধারণ সম্পাদক আসাদুল হক আসাদ, নির্মাণ শ্রমিক জোট কক্সবাজার জেলা সভাপতি প্রদীপ দাশ, জেলা জাসদ সমাজসেবা বিষয়ক সম্পাদক মোশারফ হোসেন, চকরিয়া উপজেলা জাসদের সাধারণ সম্পাদক নাজিম উদ্দিন, মহেশখালী উপজেলা জাসদের আহবায়ক আশরাফুল করিম সিকদার নোমান, জেলা জাসদ কার্যনির্বাহী সদস্য মোঃ জাকের হোসেন, মোঃ রফিক, একরামুল হক কন্ট্রাক্টার, শাখাওয়াত হোসেন সবুজ, ডালিয়া জামান, রামু উপজেলা যুবজোট সভাপতি শহিদুল ইসলাম খোকন, যুবজোট সাংগঠনিক সম্পাদক দিদারুল আলম, বাংলাদেশ ছাত্রলীগ সভাপতি আবদুর রহমান, ১১নং ওয়ার্ড জাসদের সাধারণ সম্পাদক মিসবাহ উদ্দিন আপেল, ২নং ওয়ার্ড জাসদের সভাপতি মনির হোসেন, সাধারণ সম্পাদক মোঃ সোহেল ১নং ওয়ার্ড জাসদের সাধারণ সম্পাদক মোঃ জাহেদ, নির্মাণ শ্রমিক জোট কক্সবাজার জেলা সাধারণ সম্পাদক মোঃ হাছান, সহ-সভাপতি মোঃ রাসেল, মোঃ নাছির, খুরুশকুল ইউনিয়ন নির্মাণ শ্রমিক জোট আহবায়ক আবদুল খালেক, যুগ্ম আহবায়ক অরুন দে প্রমুখ।

Print Friendly, PDF & Email

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here

three × one =