সিজার নয়,ব্যাথা মুক্ত নরমাল ডেলিভারী করছেন উত্তরার নষ্ট্রাম হাসপাতাল

0
224

অপরাধ বিচিত্রাঃ প্রতিদিন পাল্লাদিয়ে বারছে সিজারিয়ান মায়েদের সংখ্যা। নিয়ম না মানায় সেই সাথে পাল্লা দিয়ে বারছে মায়েদের স্বাস্থ্য ঝুকিও। এমতাবস্থায়,মা ও শিশুর স্বাস্থ্য রক্ষায় সিজারিয়ন পদ্দতি থেকে সরে প্রাকৃতিক নিয়মে স্বাভাবিক ডেলিভারীর প্রতি এগিয়ে আসার জন্য মায়েদের আহবান করেছেন,শহীদ সরোয়ারদি মেডিকেল কলেজের গাইনি বিভাগের প্রধান, প্রফেসর ড. মুনিরা ফেরদৌসী।

উত্তরা ৪নং সেক্টরের একটি হোটেলে নষ্ট্রাম হাসপাতাল কর্তৃক আয়োজিত,সাইন্সের চমক, ব্যাথা মুক্ত নরমাল ডেলিভারী বিষয়ক আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির  এসব বলেন। নষ্ট্রাম হাসপাতাল কর্তৃক আয়োজিত আলোচনা সভায় হাসপাতালের চেয়াম্যান ড. এ.টি.এম রাশিদুন নবীর সভাপতিত্বে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন,ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের বার্ন ও প্লাষ্টিক র্স্জারি বিভাগের প্রধান,প্রফেসর ড. বিধান সরকার, ও ড. জেবুনসেনা রুমা সহ অর্ধশত গাইনী বিভাগের প্রফেসর গন। বিশেষ অতিথির বক্তব্যে ড. জেবুননেসা বলেন,প্রায় তিনশ বছর আগে থেকেই,ব্যাথামুক্ত নরমাল ডেলিভারী ব্যাবস্থা থাকা সত্যেও ব্যাথার ভয়ে অনেক মায়েরা সিজারের সিদ্ধান্ত গ্রহন করেন।

 যার ফলশ্রæতিতে দিনকে দিন এর প্রবনতা বেড়েই চলেছে। এমন পরিস্থিতে প্রাইভেট কিøনিকের মালিকরা অনেকটা বাধ্যহয়েই সিজারের সিদ্ধান্তে উপনিত হচ্ছেন বলেও মন্তব্য করেছেন তিনি।

 এসময় সভাপতির ও নষ্ট্রাম হাসপাতালের চেয়াম্যান ড. এ.টি.এম রাশিদুন নবী,গর্ভবতি মায়েদের উদ্দেশ্যে বলেন,স্বাস্থ্য নিয়ে যদি এতই ভাবনা হয় তাহলে আপনারা আমাদের হাসপাতালে ভর্তি হয়ে ব্যাথা মুক্ত নরমাল ডেলিভারী সেবাটি নিতে পারেন। একান্তই যদি আপনার সিজার করতে হয় সেই ক্ষেত্রে কর্তব্যরত চিকিৎসক তার ব্যবস্থা নিবেন। সে জন্য আপনাকে শুধু প্রয়োজনিও ওষুধ পত্র কিনলেই চলবে বলে জানান তিনি। এসময় উপস্থিত স্ত্রী রোগ বিশেষজ্ঞ ডাক্তার ও গৃহীনিদের নানান প্রশ্নের জবাব শেষে বিকেল সাড়ে ৩ টায় এর অনুষ্ঠানটি সমাপ্তি ঘটে।

Print Friendly, PDF & Email

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here

20 − seven =