রাজশাহীর আড়ানী পৌর মেয়র মুক্তারের বাড়িতে অভিযান: কোটি টাকা, অস্ত্র, মাদক উদ্ধার স্ত্রীসহ আটক ৩

0
463

আখতার রহমান: রাজশাহীর বাঘা উপজেলার আড়ানী পৌরসভার মেয়র মুক্তার আলীর বাড়ি থেকে কোটি টাকাসহ বিপুল পরিমাণ মাদক উদ্ধার করেছে পুলিশ। এসময় মেয়রের স্ত্রী জেসমিন বেগমসহ তার দুই ভাতিজাকে আটক করা হয়েছে। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন রাজশাহী জেলা পুলিশ সুপার এবিএম মাসুদ হোসেন। তার নেতৃত্বে মঙ্গলবার গভীর রাতে পুলিশ অভিযান চালায় বলে জানা যায়। এসময় পুলিশ মুক্তার আলী ঘরের আলমারির ড্রয়ার থেকে ৯৪ লাখ ৯৮ হাজার নগদ টাকা এবং অন্য ঘর থেকে একটি বিদেশী পিস্তল, একটি সাটার গান, দুটি বন্দুক, ৪৩ রাউন্ড তাজা গুলি এবং সাতপুরি হেরোইন, ১০ গ্রাম গাঁজা ও ২০ পিচ ইয়াবা জব্ধ করেন।পরিস্থিতি টের পেয়ে গোপন দরজা দিয়ে পালিয়ে যান পৌর মেয়র মুক্তার আলী। তাকে আটকের চেষ্টা চালাচ্ছেন পুলিশ। মেয়র মুক্তার আলী আড়ানী পৌরসভার ৭ নম্বর ওয়ার্ডের পিয়াদাপাড়া গ্রামের মৃত নইম উদ্দিনের ছেলে।

মঙ্গলবার ৮টার দিতে মেয়র মুক্তার আলী আড়ানী বাজারের পল্লী চিকিৎসক আনারুল ইসলাম নামের একজনকে প্রথমে মারপিট করেন। এরপর মেয়রের নেতৃত্বে তার সন্ত্রাসীরা ওই বাজারের আরেক পল্লী চিকিৎসক আবদুল হালিমকে মারপিট করে। পরে রাতে পোনে ৯টার দিকে আবারও আরেক পল্লী চিকিৎস সহকারী অধ্যাপক মনোয়ারুল ইসলাম মঞ্জু, তার স্ত্রী দিলরুবা বেগম এবং ৭ বছরের শিশু সন্তান নয়ন আহম্মেদক মারপিট করে।

এ ঘটনায় আহত মনোয়ারুল ইসলামকে উদ্ধার করে রাতেই বাঘা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্রে ভর্তি করা হয়। ওই রাতেই পুলিশকে অভিযোগ করা হলে এসপি মাসুদ হোসেনের নেতৃত্বে মেয়র মুক্তার আলীর বাড়িতে অভিযান চালায়। এ সময় বিপুল পরিমাণ মাদক, নগদ ৯৪ লাখ টাকা এবং চারটি অস্ত্রসহ মেয়রের স্ত্রী এবং দুই ভাতিজাকে আটক করে পুলিশ।

এ বিষয়ে বাঘা থানার ওসি নজরুল ইসলাম বুধবার সকাল সাড়ে ১০টায় বলেন, আটককৃতদের জেল হাজতে প্রেরণের প্রস্তুতি চলছে।

Print Friendly, PDF & Email

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here

4 × 5 =