এসএমই ফাউন্ডেশন দেশে নারীদের জন্য কর্মসংস্থানের সৃষ্টি করে নারী জাগরণে ভূমিকা রাখছে-শিল্প মন্ত্রী

0
678

অবি ডেস্ক: এসএমই ফাউন্ডেশন থেকে ক্ষুদ্র ও মাঝারি শিল্পের উদ্যোক্তারা মূলধন হিসেবে যে আর্থিক সহায়তা পান সেটি আরও বৃদ্ধি এবং এই প্রক্রিয়া আরও সহজ করা দরকার। এতে এখাতে কর্মসংস্থান আরও বৃদ্ধি পাবে এবং মানসম্মত পণ্য উৎপাদন সম্ভব হবে। শিল্প মন্ত্রী নূরুল মজিদ মাহমুদ হুমায়ূন ঢাকার বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে ‘৭ম জাতীয় এসএমই পণ্য মেলা ২০১৯’-এর উদ্বোধন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় একথা বলেন। এসএমই ফাউন্ডেশনের চেয়ারপার্সন কে এম হাবিব উল্লাহের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন

 

শিল্প প্রতিমন্ত্রী কামাল আহমেদ মজুমদার ও শিল্প সচিব মোঃ আবদুল হালিম।
শিল্প মন্ত্রী বলেন, দেশের ক্ষুদ্র ও মাঝারি শিল্প পণ্যকে বিশ্ববাজারে প্রতিযোগিতার উপযোগী করে গড়ে তুলতে হবে। স্থানীয়ভাবে বছর জুড়ে এসকল পণ্যের মেলা ও প্রদর্শনীর ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। তিনি বলেন, এসএমই ফাউন্ডেশন দেশে নারীদের জন্য কর্মসংস্থানের সৃষ্টি করে নারী জাগরণে ভূমিকা রাখছে। এতে নিজ পরিমণ্ডলে নারীদের আর্থিক সক্ষমতা ও সম্মান বৃদ্ধি পেয়েছে।
শিল্প প্রতিমন্ত্রী বলেন, বিদেশে বাংলাদেশী দূতাবাসসমূহ ও দেশের আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরসমূহে ক্ষুদ্র ও মাঝারি শিল্পের পণ্যের প্রদর্শনী ও বিক্রয়কেন্দ্র স্থাপনের সুযোগ করে দিতে হবে। এসকল পণ্যের প্রচার আরও বাড়াতে হবে। দেশের ১৬ কোটি মানুষের ৩২ কোটি হাতকে কর্মীর হাতে পরিণত করা সম্ভব হলে দেশ হতে দারিদ্র্য বিমোচন করা সম্ভব হবে। এজন্য দেশের তরুণ ও যুবকদের ক্ষুদ্র ও মাঝারি শিল্পে বিনিয়োগের উদ্যোগ নিতে হবে।
শিল্পসচিব বলেন, ক্ষুদ্র ও মাঝারি শিল্প ভারী শিল্পের সহায়ক হিসেবে কাজ করে যা সামগ্রিকভাবে দেশে শিল্প বিকাশে গুরুত্বপূর্ণ অবদান রাখে। দেশের ক্ষুদ্র ও মাঝারি শিল্প প্রতিষ্ঠানগুলো বংশানুক্রমিকভাবে পরিচালিত। প্রশিক্ষণ প্রদান ও নতুন প্রযুক্তির ব্যাবহারের মাধ্যমে এসকল পণ্যকে বিশ্বমানের করতে হবে।

অনুষ্ঠানে ৬ টি ক্যাটাগরিতে ক্ষুদ্র ও মাঝারি শিল্পের উদ্যোক্তাদের মাঝে ‘জাতীয় এসএমই উদ্যোক্তা পুরস্কার-২০১৯’ প্রদান করা হয়। বর্ষসেরা মাইক্রো উদ্যোক্তা- নারী ক্যাটাগরিতে চাপাইনবাবগঞ্জ সদরের নুর নকশী মহিলা জাগরণের স্বত্বাধিকারী তাহারিমা বেগম, বর্ষসেরা মাইক্রো উদ্যোক্তা-পুরুষ ক্যাটাগরিতে চুয়াডাঙ্গার সরোজগঞ্জের জনতা ইঞ্জিনিয়ারিংয়ের স্বত্বাধিকারী মোঃ ওলি উল্লাহ, বর্ষসেরা ক্ষুদ্র উদ্যোক্তা- নারী ক্যাটাগরিতে পাবনার ভাঙ্গুরার এস আর হ্যান্ডিক্রাফটসের স্বত্বাধিকারী সুমনা সুলতানা সাথী, বর্ষসেরা ক্ষুদ্র উদ্যোক্তা- পুরুষ ক্যাটাগরিতে ঢাকার কেরানীগঞ্জের মহিউদ্দিন ইঞ্জিনিয়ার্স এন্ড ট্রেডার্সের স্বত্বাধিকারী মহিউদ্দিন, বর্ষসেরা মাঝারি উদ্যোক্তা- নারী ক্যাটাগরিতে গাজিপুরের কাশিমপুরের কুসুম কলি সু ফ্যাক্টরির স্বত্বাধিকারী নাজমা খাতুন এবং বিশেষ ক্যাটাগরিতে জামালপুরের মুকুন্দবাড়ীর সিড়ি হস্তশিল্পের স্বত্বাধিকারী আরিফা ইয়াসমিন ময়ূরী পুরস্কার লাভ করেন।

মেলায় দেশে উৎপাদিত পাটজাত পণ্য, খাদ্য ও কৃষি প্রক্রিয়াজাত পণ্য, চামড়াজাত সামগ্রী , ইলেক্ট্রিক্যাল ও ইলেক্ট্রনিক্স সামগ্রী, লাইট ইঞ্জিনিয়ারিং পণ্য, প্লাস্টিক ও অন্যান্য সিনথেটিক পণ্য, হস্তশিল্প, ডিজাইন ও ফ্যাশনওয়্যারসহ অন্যান্য মাইক্রো, ক্ষুদ্র ও মাঝারি শিল্পের ২৮০টি ক্ষুদ্র ও মাঝারি প্রতিষ্ঠান অংশগ্রহণ করে। আজ থেকে শুরু হয়ে এসএমই পণ্য মেলা আগামী ২২ মার্চ পর্যন্ত প্রতিদিন সকাল ১০ টা হতে রাত ৮ টা পর্যন্ত চলবে।

Print Friendly, PDF & Email

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here

17 + twelve =