দেয়ালে পিঠ ঠেকে গেছে তাই আসিফের বিরুদ্ধে মামলা ন্যান্সির

0
210

জনপ্রিয় সংগীতশিল্পী আসিফ আকবরের বিরুদ্ধে আরেক গায়িকা নাজমুন মুনিরা ন্যান্সির করা মানহানির মামলার ঘটনা এখন দেশের ‘টক অব দ্য শোবিজ’। গত বছরের শেষ দিনে আদালতের সমন পেয়ে নিজের ভেরিফাইড ফেসবুক পেজে স্ট্যাটাসের মাধ্যমে বিষয়টি জানান আসিফ আকবর। এরপরই এ নিয়ে শুরু হয়েছে নানা আলোচনা-সমালোচনা। পুলিশকে দেয়া ন্যান্সির ভিডিও ক্লিপে আসিফ আকবরকে বলতে শোনা যায়, ন্যান্সি মানসিক ভারসাম্যহীন, ৬ মাস ভালো থাকে ৬ মাস খারাপ থাকে ইত্যাদিসহ বিভিন্ন আপত্তিকর মন্তব্য। কণ্ঠশিল্পী ন্যান্সিকে নিয়ে বিভিন্ন মিডিয়ায় গায়ক আসিফ আকবরের করা এমন মন্তব্যে নাখোশ ন্যান্সি। এ নাখোশ শেষ পর্যন্ত গড়ায় আদালতে। এ বিষয়ে কথা বলতে শনিবার ময়মনসিংহ নগরীর খাগডহর তালতলা এলাকায় ন্যান্সির বাসায় গেলে এ নিয়ে মুখ খুলেন এ গায়িকা। তিনি বলেন, বিভিন্ন সময়ে আসিফের দেয়া মানহানিকর বক্তব্যের ফলে তাকে ও তার পরিবারকে হেয় প্রতিপন্ন হতে হচ্ছে। আর এ কারণেই আদালতের দারস্থ হয়েছেন তিনি।

নাজমুন মুনিরা ন্যান্সি বলেন, আসিফ ভাইয়ের বিরুদ্ধে অভিযোগটা আমি নিতান্ত নিরুপায় হয়েই করেছি। অভিযোগ করার কোনো ইচ্ছেই ছিল না। কিন্তু পেছাতে পেছাতে যখন কারো দেয়ালে পিঠ ঠেকে যায় তখন তার করার কিছু থাকে না। এখন মনে হচ্ছে এটা আমার কাছে বাঁচা-মরার মতো একটা অবস্থা। কারণ একটা মানুষের যদি মান সম্মানটা না থাকে, আমি মনে করি সেই মানুষটার আর অবশিষ্ট কিছু থাকে না। টাকা গেলে টাকা আসে কিন্তু মান-সম্মান গেলে সেটা আসে না। ন্যান্সি আরো বলেন, আমি কারো মা, কারো স্ত্রী, কারো সন্তান। আমার সন্তানরাও এখন বেশ বড় হয়ে গেছে। তাদেরও একটি নিজস্ব পরিমন্ডল তৈরি হয়েছে। সেখানে তারা যখন তাদের মাকে নিয়ে এ ধরনের কথা শুনে সেটা তাদের জন্য খুবই বিব্রতকর। সেই সঙ্গে আমার আত্মীয়-স্বজনও এসব ফেস করছেন। যা আমার জন্য এটা যন্ত্রণাদায়ক।

Print Friendly, PDF & Email

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here

19 − seven =