সিগারেট ,মাকরূহ নাকি হারাম : কুরআন-হাদীস কি বলে

0
779

কদিন সিগারেট খেলে ৪০ দিন ইবাদাত কবুল হয় না

 -রাসূল (ﷺ) বলেছেনঃ

নেশা উদ্রেককারী প্রতিটি বস্তু মদের অন্তর্ভুক্ত। আর নেশা সৃষ্টিকারী প্রতিটি বস্তু হারাম। যে ব্যক্তি একবার নেশা উদ্রেককারী জিনিস পান করলো সে তার চল্লিশ দিনের সলাতের কল্যাণ হতে বঞ্চিত হলো।

[আবু দাউদঃ ৩৬৮০]

 সিগারেটের গায়ে লেখা থাকে “ধুমপান মৃত্যু ঘটায়”।

– আল্লাহ পাক বলেন,

“তোমরা নিজেদেরকে ধ্বংসের দিকে নিক্ষেপ করো না।” [বাকারা-১৯৫]

 সিগারেট নেশাজাতীয় জিনিস।

– নবী করিম (সাঃ) বলেছেন,

“প্রত্যেক নেশার বস্তুই মাদক (খামার) আর প্রত্যেক নেশার জিনিসই হারাম।” [মুসলিম-২০০৩]

 কেউ একসাথে ১০টি সিগারেট খেলে তার নেশা হতে বাধ্য।

– রাসূল (সাঃ) বলেছেন:-

“যা অধিক সেবন করলে নেশার সৃষ্টি হয় তা কম সেবন করাও হারাম।” [তিরমিযি-১৮৬৫, আবু দাঊদ-৩৬৮১]

 সিগারেট অপবিত্র জিনিস।

– আল্লাহ পাক বলেন, “তোমাদের জন্য পবিত্র বস্তু হালাল ও অপবিত্র বস্তু হারাম করা হয়েছে।” [আরাফ-১৫৭]

 সিগারেটে অপব্যয় ছাড়া অন্য কিছু নয়।

– আল্লাহ পাক বলেন, “নিশ্চয়ই অপব্যায়কারী শয়তানের ভাই।” [সূরা ইসরা-২৭] সিগারেটের ধোঁয়ায় মানুষ চরম কষ্ট পায়।

– রাসূল (সাঃ) বলেন,

“যে ব্যক্তি আখিরাতে বিশ্বাস রাখে, সে যেন প্রতিবেশীকে কষ্ট না দেয়।” [বুখারী]

সিগারেট পুষ্টিকর কিংবা ক্ষুধা নিবারণ মূলকও কিছুই নয়।

– জাহান্নামীদের খাবার প্রসঙ্গে আল্লাহ পাক বলেন, “এটা তাদের পুষ্টিও যোগাবে না ক্ষুধাও নিবারণ করবে না।” [গাশিয়াহ-৭]

এবার আপনিই সিদ্ধান্ত নিন-

এই ধুমপান করবেন, নাকি ছাড়বেন?এই রমজানে ইফতারের পর সাহেরী শেষ করে যারা সিগারেট খান!…আস্তাগফিরুল্লাহ….

আল্লাহ আমাদেরকে এ সর্বনাশা নেশা থেকে দুরে রাখুন

Print Friendly, PDF & Email

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here

18 − sixteen =