শাকিলের অবৈধ মেলাকে বৈধতা দিচ্ছে স্থানীয় এমপি

0
256

-অপরাধ বিচিত্রা:রাজধানী উত্তরা নবাব হাববিুল্লাহ স্কুল এন্ড কলজে ও ১৩ নম্বর  সেক্টর জমজম টাওয়াররে পাশে রাজউকরে খালি প্লটে করোনাকালীন স্বাস্থ্যবধিরি তোয়াক্কা না করে চলছে  শাকিলের অবধৈ মেলা।

 আর মেলায় শিশুদের দৃষ্টি আর্কষণ এর জন্যে বসানো হয়েছে নানান রাইডস। রাইডসগুলো বসানো হয়েছে কাঁচা মাটির উপর । শিশুদের জীবনরে ঝুকি পরলিক্ষতি হচ্ছে তাতে। যে কোন মূর্হুতে র্দূঘটনা ঘটতে পারে ।

জনবহুল এলাকায় করোনা মহামারীর সময় কোন প্রকার অনুমতি না নিয়ে  এমন মেলা বসানোয় আশপাশের এলাকায়বাসী  ক্ষোভ প্রকাশ করছেনে ।

এ বিষয়ে আহাম্মসে ইলয়িাস নামের জনকৈ একজন বাড়ীর মালিক বলেন ,সরকার লকডাউন ঘোষণা করলওে প্রশাসনরে কিছু র্কমর্কতা হয়ত সহযোগতিা করছেন নইলে কি ভাবে সম্ভব মাসের পর মাস লকডাউন উপেক্ষা করে উন্মুক্ত স্থানে এমন মেলা বসানো।

এইদিকে অবধৈ মেলা  প্রসঙ্গ  শাকিল  মুঠোফোনে অপরাধ বিচিত্রাকে বলনে,আমাকে ১৮ আসনরে এমপি হাববি হাসান মেলা করার অনুমোদন দিয়েছেন। আমার আর কোন কিছু দরকার নেই।

এ বিষয়ে হাববিুল্লাহ স্কুল এন্ড কলজেরে প্রিন্সিপাল শাহিনুর রহমান অপরাধ বিচিত্রাকে বলেন,  অনুমোদনের ব্যপারে  স্পষ্ট কিছু  বলতে পারেনি।

এ বিষয়ে উত্তরা জোনরে উপ-পুলশি কমিশনার  মোঃ শহদিুল্লাহ (বিপেএম  পিপিএম)  বলেন, গত দেড় মাসের মধ্যে উত্তরা পুলিশ বিভাগের  পক্ষ থেকে কোন মেলার অনুমোদন দেওয়া  হয়নি। যদি কেউ এমন মেলা  আয়োজনের  চেষ্টা করে তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

এ বিষয়ে ঢাকা-১৮ আসনরে সাংসদ আলহাজ্ব হাববি হাসান বলনে,এমন কোন মেলার অনুমোদন কেউ  দিয়েছে কিনা  তা আমার জানা নেই। তবে হাববিুল্লাহ স্কুল এন্ড কলজেরে মেলার ব্যাপারে তাদরে নিষেধ করা হয়ছে।

মেলায় ছোট বড় ৫০টি দোকান রয়েছে যার মধ্যে বড় দোকানে আগ্রীম নেওয়া হয় ত্রিশ হাজার করে ছোট দোকান থেকে পনের থেকে বিশ হাজার টাকা।

এ বিষয়ে এক দোকানি বলেন, আমরা শাকিলকে প্রতিদিন ছোট দোকানে দেওয়া হয় বারো‘শ টাকা আর বড় দোকানে দেওয়া হয় পনের থেকে দুই হাজার টাকা।

প্রশাসনের নাকের ডগায় বসে মেলা বষিয়ে লুকোচুরি খেলেছে মূলত শাকিল ।

Print Friendly, PDF & Email

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here

nineteen + twelve =